১৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি পরিকল্পনামন্ত্রীর মোবাইল ফোন

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

দীর্ঘ ১৭ দিন পার হয়ে গেলেও এখনো উদ্ধার হয়নি পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ছিনতাই হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন। সেই সঙ্গে গ্রপ্তারও করা যায়নি ছিনতাইকারীকে। ফোন উদ্ধার ও ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ছিনতাইয়ের পর এখন পর্যন্ত পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন বেশ কয়েকবার হাতবদল হয়েছে। ছিনতাইয়ের পর প্রথমে এক দোকানে ১০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয় ফোনটি। এরপর সেই দোকান থেকে কোনো এক ক্রেতা ২৫-৩০ হাজার টাকায় ফোনটি কিনেছেন। কিন্তু ওই ক্রেতা এখনো পর্যন্ত ফোনটিতে সিমকার্ড চালু না করায় ফোনটির অবস্থান শনাক্ত করতে পারছে না পুলিশ।
বুধবার (১৬ জুন) এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জিএম ফরিদুল আলম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমরা এখন পর্যন্ত বেশ কয়েকটি আইফোন উদ্ধার করেছি। কিন্তু এর মধ্যে একটিও পরিকল্পনামন্ত্রীর ফোন ছিল না। এখন আমাদের লক্ষ্য ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করা। কারণ, তাকে গ্রেপ্তার করলে ফোনটি সবশেষ কার কাছে গেছে সেটা জানা যাবে। এ জন্য ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।
গত ৩০ মে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে বের হয়ে বিজয় সরণি সিগন্যালে আটকা পড়ে মন্ত্রী। সে সময় মন্ত্রী গাড়ির গ্লাস নামিয়ে ফোনে কথা বলছিলেন। ঠিক তখনই কিছু বুঝে ওঠার আগেই হুট করে কেউ একজন মোবাইল নিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। ওইদিনই মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী ডিএমপির কাফরুল থানায় একটি মামলা করেন।
এরপর মঙ্গলবার (১ জুন) শেরেবাংলা নগরে পরিকল্পনা কমিশনের সম্মেলনকক্ষে একনেক বৈঠক শেষে তিনি নিজেই সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
এম এ মান্নান বলেন, রোববার সন্ধ্যায় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে যাওয়ার পথে বিজয় সরণিতে গাড়িতে বসে মোবাইল ব্রাউজিং করছিলাম। এ সময় গাড়ির জানালা খোলা ছিল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই হুট করে কেউ একজন মোবাইল নিয়ে দৌড় দেয়।
তিনি বলেন, কী ঘটেছে তা বুঝতেও কয়েক সেকেন্ড কেটে যায়। এরপর গাড়িতে থাকা গানম্যানকে বলি আমার মোবাইল নিয়ে গেল। তবে গাড়ি থামিয়ে গানম্যান ওই ছিনতাইকারীর পিছু নিলেও তাকে আর ধরতে পারেনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin