স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ চাইলেন না.গঞ্জ ছাত্রফ্রন্ট সভাপতি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফন্ট্রের সভাপতি সুলতানা আক্তার বলেন, সমপ্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক বক্তব্য বলেছেন ধর্ষণ কোন ব্যপার না। সে নিজেই ধর্ষনের পক্ষে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই বক্ত্যবের তীব্র নিন্দা জানাই। এবং তার সে পদত্যাগের দাবি জানাই। যদি সে পদত্যাগ না করে তাহলে আমরা বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনে এবং সাধারন ছাত্রদের নিয়ে রাজপথে বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তুলবো।    


বুধবার (৭ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় প্রেস ক্লাবের সামনে নোয়াখালী বেগমগঞ্জ, এমসি কলেজ সহ দেশ জুড়ে নানা ধর্ষন এবং নারী নির্যাতন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিন্ত করার দাবিতে মানব বন্ধন এই হুশিয়ারী উচ্চারন করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।

এসময় সুলতানা আক্তার আরও বলেন, কে কোথায় কীভাবে বসবাস করি সেটা বড় কথা নয়। আমাদের দাবি ওই ধর্ষকদের শাস্তি দিতে হবে। ধর্ষকদের রাষ্ট্র জন্ম দিয়েছে। ধর্ষন মামলার বিচারহীনতার কারেনে সৃস্টি হচ্ছে ধর্ষক। রাষ্ট্র আমাদের মা বোনরে নিরাপত্তা দিতে পারছে না। যে মা বোনের ইজ্জতের বিনিময় আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। সেই স্বাধীন দেশেই একের পর এক ধর্ষনের ঘটনা ঘটছে। এমসি কলেজে হায়নার দল আমার বোনরে ইজ্জত লুটে নিয়েছে। দেশে ১০০ ধর্ষনের পূর্তির উৎসব চলছে। এ বিষয়ে সরকার প্রশাসন কি করছে? আমাদের নারী নির্যাতন এবং ধর্ষনের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোদ করতে হবে। যদি এই ঘটনার কোন সুরহা না ঘটে তাহলে শাহবাগের গণজাগরন মঞ্চ এবং ২০১৮ সালের ছাত্র আন্দোলনের মতো আরো বৃহৎ আন্দোলন রাজপথ দখল করবে।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরকার সন্ত্রাস নিমূল ত্বকি মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি, জেলা বাসদের সমন্বয়ক নিখিল দাস, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল প্রমুখ।

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফন্ট্রের সভাপতি সুলতানা আক্তার বলেন, সমপ্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক বক্তব্য বলেছেন ধর্ষণ কোন ব্যপার না। সে নিজেই ধর্ষনের পক্ষে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই বক্ত্যবের তীব্র নিন্দা জানাই। এবং তার সে পদত্যাগের দাবি জানাই। যদি সে পদত্যাগ না করে তাহলে আমরা বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনে এবং সাধারন ছাত্রদের নিয়ে রাজপথে বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তুলবো।

বুধবার (৭ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় প্রেস ক্লাবের সামনে নোয়াখালী বেগমগঞ্জ, এমসি কলেজ সহ দেশ জুড়ে নানা ধর্ষন এবং নারী নির্যাতন অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিন্ত করার দাবিতে মানব বন্ধন এই হুশিয়ারী উচ্চারন করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।

এসময় সুলতানা আক্তার আরও বলেন, কে কোথায় কীভাবে বসবাস করি সেটা বড় কথা নয়। আমাদের দাবি ওই ধর্ষকদের শাস্তি দিতে হবে। ধর্ষকদের রাষ্ট্র জন্ম দিয়েছে। ধর্ষন মামলার বিচারহীনতার কারেনে সৃস্টি হচ্ছে ধর্ষক। রাষ্ট্র আমাদের মা বোনরে নিরাপত্তা দিতে পারছে না। যে মা বোনের ইজ্জতের বিনিময় আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। সেই স্বাধীন দেশেই একের পর এক ধর্ষনের ঘটনা ঘটছে। এমসি কলেজে হায়নার দল আমার বোনরে ইজ্জত লুটে নিয়েছে। দেশে ১০০ ধর্ষনের পূর্তির উৎসব চলছে। এ বিষয়ে সরকার প্রশাসন কি করছে? আমাদের নারী নির্যাতন এবং ধর্ষনের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোদ করতে হবে। যদি এই ঘটনার কোন সুরহা না ঘটে তাহলে শাহবাগের গণজাগরন মঞ্চ এবং ২০১৮ সালের ছাত্র আন্দোলনের মতো আরো বৃহৎ আন্দোলন রাজপথ দখল করবে।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরকার সন্ত্রাস নিমূল ত্বকি মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বি, জেলা বাসদের সমন্বয়ক নিখিল দাস, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক ধীমান সাহা জুয়েল প্রমুখ।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin