স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় কিশোর গ্যাং লিডার গ্রেপ্তার

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ফতুল্লায় ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে শ্রমিক লীগ নেতার ভাতিজা কিশোর গ্যাং লিডার সানিকে (১৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপরে তাকে শিয়াচর তক্কারমাঠ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত সানী ফতুল্লা থানার শিয়াচর গনি হাজী বাড়ীর মোড় এলাকার আক্কাস আলীর ছেলে। ধর্ষণের শিকার হওয়া কিশোরী স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্রী।

ঘটনার বিবরনীতে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর মা জানায়, রবিবার (২৫ অক্টোবর) সে তার মেয়েকে পাশের ফ্ল্যাটের এক মহিলার নিকট রেখে ডাক্তারের নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় ডাক্তারের নিকট চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলো। দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে তার মেয়ে দুপুরের খাবার খেতে নিজদের কক্ষে গেলে দরজা খোলা পেয়ে বখাটে সানী তাদের কক্ষে প্রবেশ করে দরজা বন্ধ করে মেয়েকে ধর্ষণ করে।

বিষয়টি টের পেয়ে পাশের ফ্ল্যাটের মহিলা সহ একাধিক জন দরজায় টোকা দিয়ে দরজা খোলার জন্য চিৎকার চেচামেচি করলেও ধর্ষক সানী ২০/৩০ মিনিট পর দরজা খুলে বের হয়ে যায়। চলে যাবার সময় সানী তার মেয়েকে বলে যায় যে এ বিষয়ে প্রকাশ করলে বা মুখ খুললে তাকে সহ পরিবারের সদস্যদের কে হত্যা করা হবে।

ওই মেয়ের মা আরো জানান, বেশ কয়েক মাস ধরেই বখাটে সানী তার ৬ষ্ঠ শ্রেনীর মেয়েকে স্কুলে যাতায়াতের পথে প্রেমের প্রস্তাব সহ কু প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানায়,অভিযুক্ত ধর্ষক সানীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এবং তার বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।

সানী দীর্ঘদিন ধরে ফেন্সিডিল, বিদেশী মদ, গাঁজা, ইয়াবাসহ মাদকের রমরমা পাইকারী ও খুচরা ব্যবসা চালিয়ে আসছে। মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণে সানী গড়ে তুলেছে এক শ্রেনীর মাদকাসক্ত উঠতি বয়সীদের নিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী। সম্প্রতি মদসহ সানীর একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

সূত্রঃনিউজ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin