সেবা নিতে টাকা লাগবে নাঃ সদর থানা ওসি শাহজামান

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) শাহ জামান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা স্বাধীন সার্বভৌম উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপ্রাণ চেষ্টা করছে দেশটাকে উন্নত সমৃদ্ধ করার জন্য। আমরা আইজিপি স্যারের নেতৃত্বে বাংলাদেশ পুলিশ কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের ঢাকা রেঞ্চের ডিআইজি বিশিষ্ট লেখক হাবিবুর রহমান স্যার ঢাকা রেঞ্চের ১৩টি জেলার সবগুলাে থানায় মসজিদ ভিত্তিক একটি কর্মসূচী হাতে নিয়েছেন। আমরা প্রতি শুক্রবার থানার অফিসাররা বিভিন্ন মসজিদে গিয়ে জনসচেতনতা মূলক বক্তব্য তুলে ধরি।


২৫ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার জুম্মার নামাজের আগে শহরের ডনচেম্বারস্থ জামে মসজিদের মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেন।
ওসি আরাে বলেন, ‘সদর মডেল থানায় সেবা নিতে হলে কাউকে এক টাকাও লাগবেনা। থানায় মামলা, জিডি, অভিযােগ, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, পাসপাের্ট ভেরিফিকেশনসহ যেকোন সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে কোন ধরনের টাকা লাগবেনা। আমি আজকে মসজিদে আপনাদের কাছে বলে গেলাম ওয়াদা করে গেলাম। আর আপনারাও ওয়াদা করেন সদর মডেল থানায় সেবা গ্রহণের ক্ষেত্রে কাউকে এক টাকাও দিবেন না।

যদি কোন টাউট, দালাল, ফরিয়া এমনকি আমাদের
কোন পুলিশ সদস্য যদি আপনাদের কাছে কোন ধরনের অর্থ দাবি করে তাহলে আমাকে জানাবেন। আমরা তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসবাে।
ওসি আরাে বলেন, বর্তমানে করােনা ভাইরাসের প্রকোপ চলছে।

২৬ ফেব্রুয়ারী সারা বাংলাদেশে এক কোটি মানুষকে গণটিকা দেওয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জ সদরমডেল থানাধীন ৩১টি স্পটে গণটিকা প্রদান করা হবে। একটি কথা মনে রাখতে হবে আপনার জন্য যেন আপনার পুরাে পরিবারকে সাফারার হতে না হয়।

করােনা এমন একটি ভাইরাস যা আপনার মধ্যমে পুরাে পরিবার আক্রান্ত হতে পারে। তাই সবাইকে সচেতন হতে হবে। আগামী দিনে এমন একটা সময় আসবে আপনি করােনার টিকা না নিলে কোন ধরনের সেবা পাবেন না। এজন্য আপনারা অবশ্যই সবাই টিকা নিবেন। শিশু শিক্ষার্থীরাও তাদের বিদ্যালয়ের মাধ্যমে টিকা নিবে। ওসি জানান, সদর থানাধীন ৯টি ওয়ার্ড ও ২টি ইউনিয়ন রয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মেম্বারদের এলাকায় বিট পুলিশি কার্যালয় রয়েছে। সেখানে একজন করে অফিসার রয়েছে। সেখানে যদি আপনাদের সমস্যার সমাধান না হলে তাহলে থানায় আসবেন। থানায় আপনাদের জন্য দরজা সব সময় খােলা।

ওসি আরাে বলেন, সদর থানা এলাকায় ডাকাতি তেমন একটা না হলেওআশেপাশের এলাকায় ডাকাতি হয়ে থাকে।

ডাকাতদল কিন্তু ডাকাতি করার আগে বিভিন্ন এলাকায় রেকি করে। তারা ফেরীওয়ালা, চাওয়ালাসহ নানা ছদ্মবেশ
ধরে ঘুরে বেড়ায়। কারাে গতিবিধি সন্দেহ হলে আমাদের অবহিত করবেন। তাদেরকে আটক করে আমাদের জানাবেন। আমরা তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে
যদি দোষী হয় তাহলে আইনের আওতায় আনবাে।

সূত্রঃ সময়ের নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin