সেন্টমার্টিন দ্বীপে আটকা পড়েছে তিন হাজার পর্যটক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় দেশের সকল সমুদ্রবন্দরে তিন নম্বর সতর্কতা সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এর ফলে সেন্টমার্টিনে বেড়াতে যাওয়া তিন হাজার পর্যটক আটকা পড়েছেন। সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় পর্যটকদের আরও একদিন দ্বীপে অবস্থান করতে হবে।

আবহাওয়ার সতর্ক বার্তায় বলা হয়েছে, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং এর কাছাকাছি বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য জাহাজ চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় উপজেলা প্রশাসন। সেই সঙ্গে দুর্ঘটনা এড়াতে দ্বীপে আটকে পড়া পর্যটকদের সৈকতে নামতে নিষেধ করে মাইকিং করা হয়েছে।

এ বিষয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী বলেন, ‘সমুদ্র উত্তাল থাকায় দুর্ঘটনা এড়াতে টেকনাফ থেকে পর্যটকবাহী কোনও জাহাজ সেন্টমার্টিনে যেতে দেওয়া হয়নি। যেসব পর্যটক টিকিট কেটেছিলেন তাদের টাকা ফেরত দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দ্বীপে অবস্থানকারী পর্যটকরা যেন হয়রানির শিকার না হন সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে তদারকি করতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি সৈকতে পর্যটকদের নামতে নিষেধ করা হয়েছে।’

জাহাজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কক্সবাজার-টেকনাফ দমদমিয়া ঘাট থেকে প্রতিদিন নয়টি জাহাজে চার-পাঁচ হাজারের অধিক পর্যটক সেন্টমার্টিনে বেড়াতে যান। সাতটি জাহাজ টেকনাফ-সেন্টমার্টিন, একটি কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন এবং আরেকটি চট্টগ্রাম-সেন্টমার্টিন নৌপথে চলাচল করে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin