সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার সার্বিক মানোন্নয়নের তাগিদ দিলেন কাউন্সিলর খোরশেদ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin


রিচিং-আউট-অব স্কুল চিল্ড্রেন (রস্ক) ফেইজ-২ প্রকল্পের আওতায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ডের ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে গড়ে ওঠা গলাচিপা ও মাসদাইর আরবান স্লাম আনন্দ স্কুলের দুইটি শাখার ১৭৬ শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতবিার সকালে শহরের গলাচিপা নতুন মসজিদ সংলগ্ন মাঠে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। শিক্ষা-সামগ্রীর ভিতরে ছিল, স্কুল ব্যাগ, স্কুলের ড্রেস, একটি খাতা, একটি কলম ও একটি স্কেল।

প্রধান অতিথি মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন, মহামারী করোনা কারণে সরকার ইতিমধ্যে স্কুল-কলেজ বন্ধ রেখেছে। শিক্ষার্থীদের সুযোগ বুঝে দ্রুত স্কুল চালু করার সংবাদ আসছে। আরবান স্লাম আনন্দ স্কুলের শিক্ষার্থীদের সংখ্যা কম হওয়ায়, আগামী সোমবার থেকে স্কুল চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২/১ দিন পর পর স্কুল পরিচালনা করা হবে, সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে বার্ষিক পরিক্ষা নেয়া হবে। কেউ কোন সমস্যা ও অসুস্থ হলে শিক্ষিকাদের জানাবেন, ঝরে পড়া এই শিশুদের শিক্ষা নিশ্চিতে আমরা সকল বিষয়ে এগিয়ে আসবো। এমন একটি প্রকল্পে বাস্তবায়ন করায় প্রকল্পটির বাস্তবায়নকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘একটি জাতির সফলতা, ব্যর্থতা, উন্নতি, অগ্রগতি অনেকাংশে নির্ভর করে ঐ জাতি কত বেশি শিক্ষিত তার ওপর।

সঙ্গত কারণেই শিক্ষার সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে না পারলে এর প্রভাব হবে নেতিবাচক। তিনি আরো বলেন, ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষা না দিতে পারলে জাতিগতভাবে আমরা পিছিয়ে যাব। তাই সমাজের ঝরে পড়া এই শিশুদেরকে শিক্ষার আলোয় আলোকিত করার এমন একটি কর্মসূচি সত্যিই প্রশসংসার দাবীদার। আমি আয়োজনকারীদের এমন একটি মহৎ উদ্যোগ নেয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বিতরণে আরো উপস্থিত ছিলেন, গলাচিপা আরবান স্লাম আনন্দ স্কুলের গভর্নিং বডির সভাপতি শওকত খন্দকার, মাসদাইর আরবান স্লাম আনন্দ স্কুলের গভর্নিং বডির সভাপতি সাইফুর রহমান প্রধান, রানা মুজিব, দুই শাখার প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin