সাব্বির আলম খন্দকারের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের ছোট ভাই সাব্বির আলম খন্দকারের ১৯তম শাহাদাৎ বার্ষিকী আজ।

২০০৩ সালের বিএনপি জোট সরকার আমলের শুরুর দিকে অপারেশন ক্লিনহার্ট চলাকালীন একটি অনুষ্ঠানে প্রশাসনের লোকজনের উপস্থিতিতে সাব্বির আলম খন্দকার নিজের জানাযায় সকলকে শরীক হওয়ার আহবান জানিয়ে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন।


ওই বক্তব্য প্রদানের কয়েকদিন পর ১৮ ফেব্রুয়ারী শহরের মাসদাইর এলাকায় নিজ বাড়ির অদূরে আততায়ীদের গুলিতে তিনি নিহত হন।

সাব্বির আলম খন্দকার গার্মেন্ট মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ নিটওয়্যার অ্যান্ড ম্যানুফেকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিকেএমইএ) এর প্রতিষ্ঠাকালীন পরিচালক ও সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন। তার অপর ভাই মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ডের টানা ৩ মেয়াদের কাউন্সিলর।

২০০৩ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী সাব্বির হত্যাকান্ডের পর তার বড় ভাই তৈমূর আলম বাদি হয়ে ১৭ জনকে আসামী করে ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর মোট ৯ জন তদন্তকারী কর্মকর্তা পরিবর্তন করা হয়। পরবর্তিতে মামলাটি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) স্থানান্তর করা হয়।

সিআইডির এএসপি মসিহউদ্দিন দশম তদন্তকারী কর্মকর্তা দীর্ঘ প্রায় ৩৪ মাস তদন্ত শেষে ২০০৬ সালের ৮ জানুয়ারী আদালতে ৮ জনকে আসামী করে চার্জশীট দাখিল করেন। এতে মামলা থেকে গিয়াসউদ্দিন, তার শ্যালক জুয়েল, শাহীনকে অব্যাহতি দিয়ে সাবেক ছাত্রদল সভাপতি জাকির খান, তার দুই ভাই জিকু খান, মামুন খানসহ মোট ৮ জনকে আসামী উল্লেখ করা হয়।

দীর্ঘ ১৯ বছর পেরিয়ে গেলেও আলোর মুখ দেখেনি আলোচিত এই হত্যাকাণ্ড। পরিবারের দাবী এই হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করে দ্রুত বিচারের সম্মুখীন করা।

দিবসটি উপলক্ষে আজ শুক্রবার (১৮ই ফ্রেবুয়ারী) সাব্বির আলম খন্দকারের স্বরণে ও খুনিদের গ্রেফতার ও বিচার এবং নারায়ণগঞ্জকে সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত করার দাবীতে সকাল ৯.৩০ টায় বিকেএমইএ অফিসের (নাঃগন্জ্ঞ প্রেস ক্লাব ভবন) সামনে থেকে শোক র‌্যালীর আয়োজন করা হয়েছে। শহীদ সাব্বির আলম খন্দকার ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে উক্ত শোক র‌্যালী দল-মত, জাতি-র্ধম নির্বিশেষে যোগদানের জন্য নারায়নগঞ্জের সন্ত্রাস ও মাদক বিরোধী সকলের প্রতি বিনীত আহবান জানিয়েছেন সাব্বির আলমের ছোট ভাই ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin