সাবেক এম‌পি গিয়াসউ‌দ্দি‌নের সাথে ফতুল্লা থানা বিএন‌পির বৈঠক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin


থানা বিএনপিকে সাংগঠনিক ভাবে শক্তিশালী করার জন্য নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্য নিয়ে সাবেক সাংসদ ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের সাথে বৈঠক করেছে ফতুল্লা থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) বাদ আছর সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিলে অবস্থিত সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের কার্যালয়ে ফতুল্লা থানা বিএনপির বর্ষীয়ান নেতা অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম ও নুর ইসলামের নেতৃত্বে থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দদের সাথে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে ফতুল্লা থানার নেতৃবৃন্দরা বলেন, বিগত দিনে এই দুইটি থানায় বিএনপির যে কমিটি হয়েছে তাতে অযোগ্য ব্যাক্তিদের পদায়ন করা হয়েছে। দলের পরীক্ষিত নেতাদের অবমূল্যায়ন করার কারণে দীর্ঘ একযুগ ধরে এই দুই থানা এলাকায় বিএনপি মুখ থুবরে পরে আছে। অথচ এই দুইটি থানা ছিল বিএনপির শক্তিশালী ঘাটি।

ফতুল্লা থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আমরা উপস্থিত সবাই আপনার নেতৃত্বে রাজনীতি করি বলে এই অপরাধে আমাদেরকে রাজনীতি থেকে দূরে ফেলে দিয়ে বিএনপিকে পঙ্গু করে দিয়েছে। আগামী দিনে এ অবস্থা আর মেনে নেওয়া হবে না। পুনরায় এ ধরনের পরিস্থিতি হলে কঠিন জবাব দেওয়া হবে। এমন পরিস্থিতিতে আপনি আর নিরব থাকবেন না। অত্র আসনে আপনি দলের সংসদ সদস্য ছিলেন। আপনি এই দায় এড়াতে পারবেন না। আগামী কমিটিতে যোগ্য ব্যাক্তিদের দিয়ে মূলায়ন করা না হলে যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে তখন আপনি সামাল দিতে পারবেন না। তাই আপনাকে আগামী কমিটির গঠনের বিষয়ে গুরুত্ব সহকারে নজর রাখতে হবে।

এ সময় সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন নেতাকর্মীদের শান্ত হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, দীর্ঘ বহু বছর যাবত নানা সমস্যায় জর্জরিত ছিল বিএনপি। বিশেষ করে দলের চেয়ার পার্সন দেশনেত্রী বেগম থালেদা জিয়া বিনা দোষে কারাবন্দি। মিথ্য মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেশের বাইরে আবস্থান করছে। এই বিষয়গুলি আমাদের মাথায় রেখে দলের জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। কর্তমান আহবায়ক কমিটির কারোর কিরুদ্ধে কোন কথা না বলে এই কমিটিকে সর্বাত্বক সহযোগিতা করতে হবে। আপনারা বিশ্বাস রাখবেন এবার যে কমিটি গঠন করা হবে সেখানে যোগ্য ব্যক্তিরাই স্থান পাবে। কোন অযোগ্য ব্যক্তিদেরকে নিয়ে পকেট কমিটি করা হবে না। আর যদি তারা না করে তখন আমি আর নীরব থাকবো না।

এ সময় উপস্থিত নেতৃবৃন্দরা মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনের আশ্বাসে সন্তুষ্ট হয়ে আগামী দিনে দলের জন্য নিবেদিত হয়ে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন

সূত্রঃ দৈনিক অগ্রবাণী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin