সাংবাদিক সবুজের ছেলের উপর হামলা, আসামিদের সংশোধনাগারে পাঠানোর নির্দেশ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন সবুজের ছেলের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেপ্তার তিন আসামির রিমান্ড না মঞ্জুর করে সংশোধনাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ শেখ রাজিয়া সুলতানার আদালত এ আদেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে আসামিদের তোলা হয়। আসামীরা হলেন- গোলাম মারুফ জিদান (১৭), মো.সামিউল ইসলাম আবির (১৬) এবং আলিফ আহম্মেদ জিহান (১৭)।

আদালতে তিন আসামির জামিন আবেদন করেন তাদের আইনজীবী। আদালতে রিমান্ড আবেদনের বিরোধীতা করেন রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি এড. রকিবউদ্দিন আহমেদ। বাদীপক্ষে আদালতে এড. মাহবুবুর রহমান মাসুম, এড. আনিসুর রহমান দিপু, এড. আসাদুজ্জামান আসাদ, এড. জিয়াউল ইসলাম কাজলসহ কয়েকজন আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী এড. মাহবুবুর রহমান মাসুম বলেন, উল্লেখিত আসামীদের প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের ঘটনায় আদালতে রিমান্ডের আবেদন করা হলে বিজ্ঞ আদালত রিমান্ড না মঞ্জুর করে সংশোধনাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

এ হামলার ঘটনায় নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন সবুজ বাদী হয়ে গোলাম মারুফ জিদান (১৭), মো.সামিউল ইসলাম আবির (১৬) এবং আলিফ আহম্মেদ জিহান (১৭), মো. আনান (১৭), নাহিয়ান (১৭), আব্দুর রহমান পল্টু (২২) সহ অজ্ঞাত নামা ১৫/২০ জন বিরুদ্ধে আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

উল্লেখ্য, গত রবিবার (৩ এপ্রিল) পৌনে ১০টার দিকে ফতুল্লার মাসদাইর ঈদগাঁ সংলগ্ন মেলা ফুডের সামনে কিশোর গ্যাংয়ের হামলা ও ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দিন সবুজের বড় ছেলে অনন্ত শাহ। এ ঘটনায় আহত অনন্তের পিঠের ক্ষতস্থানে ১৮টি সেলাই দেয়া হয়েছে। আহত অনন্ত শাহ (১৬) নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin