শিক্ষিকা ও তার পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় মানববন্ধন

শেয়ার করুণ

সোনারগাঁয়ের নুনরেটেকের মায়াদ্বীপে শিক্ষিকা ও তার পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় মানববন্ধন করেছে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠি সোনারগাঁ শাখা ও চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র সোনারগাঁ শাখা।

রবিবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার উদ্ধবগঞ্জ এলাকায় সোনারগাঁও প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নুনেরটেকের মায়াদ্বীপের সুবিধাবঞ্চিত জেলে সম্প্রদায়ের শিশুদের জন্য সমাজকর্মী কবি শাহেদ কায়েস ‘মায়াদ্বীপ জেলেশিশু পাঠশালা’ নামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন। পাশাপাশি তিনি নুনেরটেক এলাকার মেঘনা নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলেন। অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধের আন্দোলন ‘মায়াদ্বীপ রক্ষা আন্দোলন’-এর কারণে ওই এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল শাহেদ কায়েস- এর সঙ্গে দ্বন্ধে লিপ্ত হন। ওই ঘটনার জের ধরে গত ২২ জানুয়ারি রাতে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা মরিয়ম আক্তার পাখী ও তার দেড় বছর বয়সী মেয়েসহ পরিবারের ৫ জনকে পিটিয়ে আহত করে বালু সন্ত্রাসীরা।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সংগঠনগুলোর নেত্রীবৃন্দ দোষীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক বিচারের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।এছাড়া নুনেরটেকের মায়াদ্বীপের পাঠশালাটি যাতে তার র্কাযক্রম অব্যাহত রাখতে পারে সেজন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মানব বন্ধনে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী সোনারগাঁ শাখার সভাপতি শংকর প্রকাশের সঞ্চালনায় ও বাসদ সোনারগাঁ শাখার সমন্বয়ক ও চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র সোনারগাঁ শাখার সংগঠক বেলায়েত হোসেন-এর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সুবর্ণগ্রাম ফাউন্ডেশন-এর চেয়ারম্যান কবি শাহেদ কায়েস, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নারায়ণগঞ্জ জেলার আহবায়ক প্রদীপ সরকার, চারণ জেলা সংগঠক পরিতোষ চক্রবর্তী, সংগঠক আনোয়ার হোসেন, উদীচী সোনারগাঁ শাখার সাধারণ সম্পাদক ভাবনা সূত্রধর, বেদেবহর ভাসমান পাঠাশালার শিক্ষক রত্না খানম, শিক্ষানুরাগী পারভেজ খসরু ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব দীলিপ কুমার দাশ প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুণ