শামীম ওসমানের উন্নয়নকে নিয়ে অপপ্রচার করা হচ্ছে: খোকন সাহা

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বন্দরে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৫ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৩ নং ওয়ার্ডস্থ একরামপুরে এ আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে ২৩ নং ওয়ার্ড মহান বিজয় দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি সিরাজ উদ্দিন আহম্মেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খোকন সাহা। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ূন কবির মৃধা, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো.জুয়েল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কমল। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ রশিদ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ্যাডভোকেট খোকন সাহা বলেন, নারায়ণগঞ্জে একটি বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণ হবে ৩০০ একর জায়গার উপর। এর জন্য ডিউ লেটার দিয়েছিলেন শামীম ওসমান। গত এক পত্রিকায় দেখলাম কোথাকার কোন সরকারি কর্মকর্তা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কাজ করেছে, ছি! সাংবাদিকরা দেখেন কোনটা সত্য, আমার হাতের ডিউ লেটার দেখেন। মিথ্যা বলবেন না, সত্য সবসময় সত্য থাকবে। শামীম ওসমানের উন্নয়নকে নিয়ে অপপ্রচার করা হচ্ছে। তারা শামীম ওসমানের নাম নিষানা মুছে ফেলতে চায়। নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকা রেলওয়ে কাজ হচ্ছে, শেখ জামাল আইটি ইনস্টিটিউট শামীম ওসমান আনা হবে, সিটি এলাকায় নারায়ণগঞ্জে হার্ট ইন্সটিটিউট হবে, চাষাড়া থেকে আদমজী যাওয়ার জন্য রাস্তা, দেশে অন্য কিছু না হলেও কদম রসূল ব্রিজের কাজ শুরু হবে এগুলো আমাদের নেতার অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার কথা উল্লেখ্য করে খোকন সাহা বলেন, এই এলাকার ড্রেনেজ ব্যবস্থা, পয়নিষ্কাশনসহ কোন ব্যবস্থাই ভালো ভাবে হচ্ছে না। আজ রাস্তার জন্য আপনাদের জায়গা নিলেও ক্ষতিপূরন দেয়া হচ্ছে না। সরকার ৩গুন দাম দিয়ে রাস্তার জায়গা নিয়েছে। আজ সেই রাস্তা আপনাদের টাকা দিবে বলে আশ্বাস দিলেও সরকারের দেয়া ৩ গুন দামের মধ্যে কোন মূল্যই আপনারা পাচ্ছেন না। আগামীতে অন্য মেয়র হলে ক্ষতিপূরণ পাবেন। ১৫ তারিখে একজন বলেছেন ভেবে চিন্তে কথা বলতে, তকমা লাগানোর মতো অবস্থা, শত শত কোটি টাকার টেন্ডার হয় আওয়ামী লীগের লোকেরা পায় না। এখানকার একজন বললো রাজাকাররা পায়। কোটি কোটি টাকার রাস্তা করবেন চোরদের কাজ দিবেন, এটা কিন্তু জনগণ বরদাস করবে না। অনেক কর্মী আমার হাতে সৃষ্টি ২৫ বছর যাবত আমি রাজনীতি করছি। আগামীতে কোন স্থানে বিতর্কিত লোকদের নেত্রী স্থান দিবেন না, যারা ধর্মীয় সম্পত্তি খায় তাদের নেত্রী স্থান দিবেন না।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান বলেন, আমাদের বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে যে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন তারই ছোঁয়া লেগেছে নারায়ণগঞ্জে। একেএম শামীম ওসমানের অক্লান্ত পরিশ্রমে আমরা নারায়ণগঞ্জে বিশ্ববিদ্যালয় পাচ্ছি। এই ধারাবাহিকতায় শামীম ওসমানের নেতৃত্বে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin