শরীফ হত্যায় বর্তমান চার্জশীট বাতিল করে সিআইডি কর্তৃক মামলা সুষ্ঠু তদন্তের দাবী

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় শরীফ মাদবর নিহত হওয়ার ঘটনায় ন্যায় বিচারের স্বার্থে বর্তমান চার্জশীট বাতিল করে সিআইডি কর্তৃক মামলা সুষ্ঠু তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশীট দাখিলের দাবী জানিয়েছেন বাবা আলাল মাদবর।

১৯ অক্টোবর সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় মোঃ শরিফ মাদবরের হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে আয়োজিত মানববন্ধন শেষে গণমাধ্যম কর্মীদের দেয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই দাবী জানান। আর ওই মানববন্ধনে মা ও বাবা সহ এলাকাবাসী সকলেই উপস্থিত হয়েছিলেন বিচারের দাবীতে।

ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শরীফ মাদবর উল্লেখ করেন, গত ১ এপ্রিল আমার একমাত্র ছেলে শরীফ মাদবরকে ধারালো অস্ত্রধারী একদল সন্ত্রাসী আমার বাড়ীর সামনে প্রকাশ্যে দিবালোকে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনার দিন মামলা দায়ের করা এবং ভিডিও ফুটেজে সকলকে চিনতে না পারায় ১১ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ৩ থেকে ৪ জন বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করি। প্রকৃত পক্ষে পরবর্তীতে ভিডিও ফুটেজে দেখতে পাই আমার ছেলের হত্যাকারী তিনধাপে মোট ৪১ জন দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি নিয়ে অংশ গ্রহণ করে। আর এই মামলাটির তদন্ত করে ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন আমাকে অবগতনা করে মনগড়া ব্যক্তিদের স্বাক্ষী রেখে গত ৩০ জুন ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে এবং ৩ জনকে অব্যাহতি চেয়ে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে।

আলাল মাদবর আরও উল্লেখ করেন, আমি প্রকৃত খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য ন্যায় বিচারের স্বার্থে বর্তমান চার্জশীট বাতিল করে সিআইডি কর্তৃক মামলা সুষ্ঠু তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশীট দাখিলের দাবী জানাচ্ছি। আমার ছেলেকে হত্যায় যারা জড়িত এবং যাদের আমি চিনতে পেরেছি তারা শাকিল লালন সহ এলাকায় চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী চাঁদাবাজ, নারী নির্যাতনকারী হিসেবে পরিচিত। এই ঘটনার নালিশ কাশীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের কাছে দিলে তিনি বরং আমাদেরকে অপমান করে অন্যায় বিচার করে। তাছাড়া কাশীপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার শামীম আহমেদের আশ্রয় প্রশ্রয়ে সন্ত্রাসীরা অপকর্ম করে বেড়ায়। এমনকি হত্যাকান্ডের কিছুক্ষণ আগেও আমার ছেলে শামীম মেম্বারকে ফোন করেছিল সে আসেনি বা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin