লাঙ্গলকে লাথি মেরে নদীতে ফেলে দেন,জাহাঙ্গীরের বক্তব্যে ক্ষোভে ফুঁসছে না.গঞ্জ জাতীয় পার্টি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনের অন্যতম এক নাম জাতীয় পার্টি। ১৯৮৬ সালের ১ জানুয়ারি সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ জাতীয় পার্টি গঠন করেন। এ দলটি ১৯৮৬-১৯৯০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের ক্ষমতায় ছিল। পরে ১৯৯৬-২০০১, ২০০৮-২০১৩ এবং ২০১৪-২০১৯ সালে আওয়ামী লীগের সাথে সরকার গঠনে শরিক ছিলো।

এরশাদ হাত ধরে রাজনৈতিক অঙ্গনে সূচনা হওয়া এই দলটির প্রতীক লাঙ্গল। এটি দলীয় এবং নির্বাচন কমিশন নিবন্ধীত প্রতীক। লাঙ্গল বাংলাদেশের বৃহৎ জনগোষ্ঠীর আস্থা ও ভালোবাসার প্রতীক। জাতীয় পার্টিকে যারা ভালোবাসে এই লাঙ্গল তাদের প্রতীক। এমনটাই দাবি নারায়ণগঞ্জের এ দলের নেতাকর্মীদের।

এবার জাতীয় পার্টির সেই প্রতীক লাঙ্গলকেই ‘লাথি মেরে নদীতে ফেলে দেন’ বলেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। আর তার এই বক্তব্যে জেলা জুড়ে বইছে চরম সমালোচনা ও নিন্দার ঝড়।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বন্দর উপজেলার একটি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, ‘ লাঙ্গল লাথি মেরে নদীতে ফেলে দেন’।

তার এমন বক্তব্যে ক্ষোভে ফুঁসছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগরের জাতীয় পার্টি এবং এর অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির বর্তমানে কমিটি না থাকলেও, অতি শীগ্রই কমিটি গঠন করার জন্য জেলা ও মহানগরের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে কেন্দ্র থেকে। ইতিমধ্যে সেই কমিটিদ্বয়কে নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ আলোচনা সভাও করেছেন। জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতে থাকা প্রথম সারির নেতৃবৃন্দ, নিজ দলের প্রতীক ‘লাঙ্গল’ নিয়ে এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে গণমাধ্যমে নিজেদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

জেলা জাতীয় পার্টি সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক সানাউল্লাহ সানু বলেন, ‘জাহাঙ্গীর গংরা বিগত নির্বাচনে এস এম আকরামকে ধানের শীর্ষে নির্বাচিত করতে জাহাঙ্গীর আলম কাজ করেছে। যারা রাতে ধানের শীর্ষ, দিনের বেলা নৌকার কাজ করে, তাদের দ্বারা এরকম মন্তব্যই সম্ভব। লাঙ্গলকে সে লাথি মারবে, তার এমন মন্তব্য আমি কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট সুবিচার দাবি করবো। এরকম কুচরিত্ররা মহাজোট ভাঙ্গতেই এমন চক্রান্ত করছে’।

মহানগর জাতীয় পার্টি সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আকরাম আলী শাহীন বলেন, ‘যে নিজেই নিজ দলের বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়, আওয়ামী লীগকে স্বাধীনতা বিরোধী দল বলে, তার দ্বারা এমন মন্তব্যই সম্ভব। ২০০৮ সালের নির্বাচনী জনসভায় আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য চার চারবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য প্রয়াত নাসিম ওসমানের হাতে নৌকার পরিবর্তে লাঙ্গল তুলে দিয়েছিলেন। সেসময় প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, লাঙ্গলকে আমি নৌকায় তুলে নিলাম। সুতরাং, জাহাঙ্গীর আলমের বক্তব্য তার নেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে’।

মহানগর জাতীয় পার্টি সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব আফজাল হোসেন কাউন্সিলর বলেন, ‘শান্ত নারায়ণগঞ্জকে অশান্ত করার চেষ্টা করবেন না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে লাঙ্গল নিয়েই মহাজোট গঠন করা হয়েছিল। সেই মহাজোট গঠনের কারণেই বাংলাদেশে আজ ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। আমি জানি না জাহাঙ্গীর আলম কোন দল করেন, তার নেত্রী কে? আমার মনে হয় মহাজোটকে ভেঙ্গে শেখ হাসিনার উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার চক্রান্তের অংশই তার বক্তব্য’।

সূত্রঃলাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin