যুক্তরাষ্ট্র সরকারের জনস্বাস্থ্য বিভাগের প্রামাণ্যচিত্রে “ইউনিক ক্যারেক্টার” টিম খোরশেদ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

মহামারি করোনাকালীন সময়ে জীবনবাজী রেখে করোনা প্রতিরোধে কাজ করা ফ্রন্টলাইনার তৃণমূল জনপ্রতিনিধি ও মানবিক সংগঠন টিম খোরশেদ এর করোনা প্রতিরোধে জীবনবাজি রাখা, চিকিৎসক ডা.মোর্শেদ, নার্স মিস শিপা,জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা.মাইকেল ফ্রেডম্যানের কোভিড আক্রান্তের জীবন বাঁচানোর লড়াই এবং কোভিড চলাকালীন সময়ে লকডাউনে ঘরবন্দী শিশু তৃধা ও নৃধা দুই বোনের সচেতনতা ,গর্ভবতী গার্মেন্টস কর্মী সীমার করোনা ভীতি ও ঘরবন্দী অবস্থায় একজন মন্ত্রীর ডা.মুরাদ হাসানের রোগ প্রতিরোধের লক্ষ্যে স্বাস্থ্য সচেতনার উপর ৪০ মিনিটের প্রামাণ্যচিত্র “CORONAকাল” তৈরী করেছেন যুক্তরাষ্ট্র সরকারের ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ এন্ড হিউম্যান সার্ভিস এর সেন্টার ফর ডিজিজেস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)।

প্রামাণ্যচিত্রে ৭ জন “ইউনিক ক্যারেক্টার” করোনা ভীতিকে জয় করে কিভাবে মহামারী প্রতিরোধে তাদের দায়িত্ব পালন করেছে তার সচিত্র বর্ণনা দেয়া হয়েছে। সিডিসির তত্বাবধানে নির্মিত প্রামান্যচিত্র “করোনা কাল” এ সর্বাধিক গুরুত্ব পেয়েছে নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলার মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ এর নেতৃত্বাধীন “টিম খোরশেদ” এর করোনা মৃতদেহ দাফন ও সৎকার পর্বটি। দেশের বিশিষ্ট নাগরিক,সাংবাদিক,কোভিড সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ,গবেষক ও শিল্প সমালোচকদের উপস্থিতিতে গতকাল রবিবার ১৪ মার্চ মহাখালী সেনা কল্যান সংস্থা শপিং মলের স্টার সিনেপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রামাণ্যচিত্র “করোনা কাল” এর প্রিমিয়ার শো।

প্রিমিয়ার শো’তে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিডিসি বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের কান্ট্রি ডিরেক্টর ডা.মাইকেল ফ্রেডম্যান।ডা.মাইকেল তার বক্তব্যে বলেন,আমরা বাংলাদেশের করোনাকালীন সময়,সামাজিক ও মনসত্বাত্তিক সংকট এবং ফ্রন্টলাইনারসদের কর্মকাণ্ডকে আগামী শত বছরের জন্য ধরে রাখার জন্য চিত্রিত করেছি।

এজন্য আমরা বিভিন্ন সেক্টর থেকে ৭ জন ইউনিক ক্যারেক্টারকে বেছে নিয়েছি।আমরা তাদের উপড় গত বছরের সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর দুই মাস মাঠ পর্যায়ে কাজ করে করোনাকালীন প্রকৃত সংকট ও তাদের কর্মকান্ডকে তুলে এনেছি।বক্তব্য শেষে ডা.মাইকেল ইউনিক ক্যারেক্টার অবিহিত করা ৭ জনকে সবার সামনে পরিচয় করিয়ে দেন।এসময় আরো বক্তব্য রাখেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা.মুরাদ হাসান।

এসময় উপস্থিত বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গরা সরকারী উদ্যেগের বাইরে কাউন্সিলর খোরশেদের মানবিক সংগঠন “টিম খোরশেদ” এর দেশে সর্ব প্রথম কোভিড আক্রান্ত ও সাসপেক্ট মৃতদেহ দাফন ও সৎকার করার মত সাহসী ও মানবিক উদ্যেগ নেয়ায় ভূয়সী প্রশংসা করেন ও খোরশেদ ও তার টিমের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। উল্লেখ্য যে,প্রিমিয়ার শো এর দাওয়াত পত্রেও সিডিসি উল্লেখ করেছেন “বাংলাদেশের করোনা সংকটের এক বছর উপলক্ষে করোনা ভীতিকে জয় করে করোনা প্রতিরোধে এগিয়া যাওয়া ৭ ইউনিক ক্যারেক্টার ও তাদের গল্প “CORONAকাল”দেখার আমন্ত্রণ।

” প্রামাণ্যচিত্রটি মূলত ইংরেজি সাব টাইটেল সহ বাংলায় করা হয়েছে।”CORONAকাল” বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সংস্থার সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।সেন্সর বোর্ড কর্তৃক অনুমোদিত হওয়ার পরে কমপক্ষে ১২ টি ভাষার সাবটাইটেল সহ যুক্তরাষ্ট্রের কার্যক্রম আছে পৃথিবীর এমন সকল দেশে সিডিসি সম্প্রচার ও প্রদর্শনের আয়োজন করবে এবং বাংলাদেশের মানুষের জন্যও উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।

প্রামাণ্যচিত্রটি নির্মাণ করেছেন মিডিয়া হাউস ফ্লাগগার্ল এর প্রিয়তি ইফতেখার, কারিগরি সহায়তায় ছিল দেশ বিখ্যাত মিডিয়া প্রতিষ্ঠান ব্লাক মিরর এবং কনসালটেন্সি করেছেন সেফটিনেট। এ প্রসঙ্গে টিম খোরশেদ এর টিম লিডার কাউন্সিলার মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন,আমাদের ছোট একটু উদ্যেগ এত বড় আকারে প্রকাশ পাওয়ায় আমি আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে শোকরিয়া ও নারায়নগঞ্জবাসীকে সহযোগিতার জন্যে কৃতজ্ঞতা জানাই।

খোরশেদ আরো বলেন, এ সাফল্য নারায়ণগঞ্জবাসী ও টিম খোরশেদ এর সকল স্বেচ্ছাসেবকদের, আমার একার কিছু নয়।তিনি আরো বলেন,আমরা করোনা প্রতিরোধে গত এক বছর যাবত নিয়মিত কাজ করছি এবং সম্ভবত দেশে করোনার থার্ড ওয়েব শুরু হয়েছে। যতদিনই করোনা তার তান্ডব চালাক না কেন, আমরা দাফন-সৎকার,অক্সিজেন, প্লাজমা ও এম্বুলেন্স সাপোর্ট নিয়ে আমরা মাঠে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin