যানজট নিরসণে বিশেষ উদ্যোগ জেলা পুলিশের

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

গত কিছুদিন ধরেই যানজটে নাকাল শিল্প নগরী নারায়ণগঞ্জ শহরের বাসিন্দারা। সকাল, দুপুর কিংবা রাত- সবসময়ই যানজট। ঈদ যত এগিয়ে আসছে, যানজটের ভূগান্তি আরও বাড়েছে। এ অবস্থায় যানজট নিরসণে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ।

পবিত্র মাহে রমহান উপলক্ষে সুষ্ঠু ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করণে সোমবার (৪ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টায় নগরীর জিয়া হলের সামনে ৫০ জন ট্রাফিক কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যের মাঝে জ্যাকেট বিতরণ করে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান ।

এ সকল সদস্যরা যানজট নিরসনের পাশাপাশি ৯টি স্থানে অবস্থান নিয়ে অবৈধ যানবাহন শহরে প্রবেশ প্রতিরোধ করবে।

পুরো এই আয়োজনে অর্থায়ন করছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ।

এর আগে পবিত্র কোরআন তেলোয়াতের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। পরে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মো. জাহেদ পারভেজ চৌধুরী।

সেখানে তিনি বলেন, আমরা সকলেই যানজটে নাকাল হয়ে আছি। তাই বরাবরই পত্রপত্রিকা কিংবা বক্তব্যের মাধ্যমে আমাদের কাছে এই সহযোগীতাটা বেশি চান আপনারা। তবে, যানজট নিরসন একক ভাবে পুলিশের কাজ, সেটাও না। বেশ কয়েকটি সংস্থা এর সাথে জড়িত রয়েছে। তারপরেও আপনাদের সকলের দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে, আমাদের সম্মানিত পুলিশ সুপার স্যার উদ্যোগ নিয়েছেন, আসন্ন ঈদুল ফেতর উপলক্ষে নগরবাসীকে আমরা একটি পরিচ্ছন্ন, যানজট মুক্ত নগর উপহার দিবো। তবে এ জন্য আপনাদের সকলের সহযোগীতা প্রয়োজন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আগামী ৫ এপ্রিল থেকে খানপুর মোড়, জেলা পরিষদের সামনের রোড, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের রোড, চুনকা পাঠাকারের সামনের রোড, মন্ডলপাড়া ব্রিজ, ২নং রেল গেইটের ডায়মন্ড হল চত্বর এবং ১ নং রেল গেইট এলাকায় অবস্থান নিয়ে অবৈধ যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা হবে। পুলিশের পাশাপাশি এই ৫০ জন ট্রাফিক কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য নগরীর ৭টি স্থানে দেখে যানজট নিয়ন্ত্রণ করবে। এতের কেউ চাঁদাবাজী করলে আমরা সাথে সাথে গ্রেপ্তার করবো। যানজট নিয়ন্ত্রণে আপনারা সকলেই সহযোগীতা করবেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার বলেন, শহরের যানজট নিরসনে অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করা হবে। মঙ্গলবার থেকে আমাদের সাথে কাজ করবে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

এ সময় তিনি বলেন, এসপি স্যার ওমরাহ পালনের উদ্দেশ্যে সৌদি আরব গিয়েছে, তারপরেও সকল বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। সকলে তার জন্য দোয়া করবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মো. জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ ও অপারেশন) মো. আমির খসরু, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মদ শফিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মো. তরিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রসিকিউশন) শাওন শায়লা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নাজমুল হাসান, নারায়ণগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শাহ্জামান প্রমুখ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin