মোবাইল কিনে না দেয়ায় কিশোরীর আত্মহত্যা

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আড়াইহাজারে আনিকা(১৪) নামে এক কিশোরী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বাবা ও সৎ মায়ের সাথে অভিমান করে মোবাইল কিনে না দেয়ায় আত্মহত্যা করে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের নরিংদী এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। একই এলাকার ইব্রাহিমের কিশোরী কন্যা আনিকা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, পিতা ও সৎ মায়ের কাছে একটি মোবাইল কিনে দেওয়ার জন্য বায়না ধরে। কিন্তু অভাবের সংসারে পিতা ইব্রাহিম ও সৎ মা জান্নাতি তার এ বায়নায় সায় না দিয়ে তাকে বকাঝকা করে। সকাল ৯টার দিকে তাদের ঘরের দরজা বন্ধ দেখে পিতা-মাতা ও বাড়ির লোকজন দরজা খোলার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ দরজা ভেঙ্গে ভিতরে গিয়ে দেখতে পান, ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে রয়েছে আনিকা।

আড়াইহাজার থানার ডিউটি অফিসার এসআই শফিকুল জানান, নিহত আনিকা উপজেলার দুপ্তারা এলাকায় সামির আলীর স্পিনিং মিলের শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো। তার আয় করা টাকা দিয়ে মোবাইল ক্রয় করতে না পারায় তার মন খারাপ ছিল। পরিবার থেকে কেনো অভিযোগ করা হয়নি। লাশ পুলিশ সুপারের নির্দেশে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin