মাসদাইর বাড়ৈভোগে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষন

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলার ফতুল্লা থানাধীন মাসদাইর বাড়ৈভোগ এলাকায় রিকশার গ্যারেজে নিয়ে এক গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দানিয়াল (২৭) নামের এক যুবককে আটক করেছে ফতুল্লা থানা পুলিশ।

গত শুক্রবার (১২ নভেম্বর) রাতে মাসদাইর বাড়ৈভোগ এলাকায় এই ধর্ষনের ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী গার্মেন্টকর্মী শনিবার সকালে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, শুক্রবার রাতে কাজ শেষে ধর্ষনের শিকার গার্মেন্টস কর্মী আরেক সহকর্মী ছেলের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় দানিয়েল ও তার আরেক বন্ধু তাদের পথরোধ করে তাদের প্রেমিক-প্রেমিকা আখ্যা দিয়ে নানা ধরনের কুরুচিপূর্ণ কথাবার্তা বলতে থাকে। এক পর্যায়ে নিজের ইজিবাইকে তুলে একটি রিকশার গ্যারেজে নিয়ে প্রথমে দানিয়েল তরুণীকে ধর্ষণ করে। পরে তার অপর বন্ধুও ধর্ষণ করে। এভাবে সারারাত পালাক্রমে দুইবন্ধু মিলে তরুণীকে ধর্ষণ করে ভোরে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ছেড়ে দেয়।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাকিবুজ্জামান বলেন, তাদের কাছ থেকে ছাড়া পেয়ে তরুণী তার কারখানার মালিকসহ স্থানীয় লোকজনকে জানিয়ে থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত দানিয়েল নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়ছে। গ্রেফতারকৃত দানিয়েল (২৭) সে একই এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। মামলার অপর আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin