মাসদাইরে বেপরোয়া মাদক ব্যবসায়ী শাওন

শেয়ার করুণ

জেলার ফতুল্লা থানার মাসদাইর বাজার এলাকার চিহ্নিত জুয়ারী রশা কসাই এর ছেলে স্বীকৃত মাদক ব্যবসায়ী শাওনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ মাসদাইরবাসী। দিনকে দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে শাওন। ফতুল্লা থানায় একাধিকবার অভিযোগ করে মিলেনি কোন প্রতিকার। একের পর এক অপরাধ করে রয়ে যাচ্ছে ধরা ছোঁয়ার বাইরে। অজ্ঞাত কারনে আইনের ধরা ছোয়ার বাইরে থাকায় মানুষের মনে উঠেছে প্রশ্ন। আর কত বেপরোয়া হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে প্রশাসন।

গত ৪ ডিসেম্বর মাদক ব্যবসায়ী শাওনের নেতৃত্বে গোলাম মোস্তফা রনির মাসদাইর গুদারাঘাট এলাকায় একটি দোকানে পুর্ব শত্রুতার জের ধরে অনুমান রাত ১০ টার সময় শাওনের সাথে থাকা ৮/৯ জন লোকজন নিয়ে গালা গাল করতে থাকে। রনি এর প্রতিবাদ করলে তাকে কিল ঘুসি দিয়ে দোকান থেকে রাস্তায় নামিয়ে মারধর করতে থাকে। পরে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে তারা পালিয়ে যায়। যাবার সময় দোকানের ভেতরে থাকা দুইটি স্মার্ট ও দুইটি বাটন মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়, যার আনুমানিক মুল্য পয়ত্রিশ হাজার টাকা ও দোকানের ক্যাশে থাকা নগদ ২৫/৩০ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

ভুক্তভোগী গোলাম মোস্তফা রনি আরো জানান টাকা নিতে বাধা দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে দোকানে ভাংচুর চালায় শাওন ও তার অনুসারীরা। দোকানে হামলার খবর শুনে তার স্ত্রী ফারজানা ও ছেলে হ্নদয় ছুটে আসলে তাদের উপরও হামলা করে তার। লাঠি দিয়ে আঘাত করে শরীরের বিভিন্ন যায়গায় জখম করে। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানায় হাজির হয়ে অভিযোগ দায়ের করার আজ দশদিন হয়ে গেলেও আসামী না ধরায় চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে পরিবারটি। অভিযোগটির তদন্ত দায়িত্বে রয়েছেন এস আই আশিক ইমরান। অনতিবিলম্বে আসামীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার অনুরোধ জানায় পরিবারটি।

নিউজটি শেয়ার করুণ