মামুনুলের রিসোর্টকাণ্ডে চাকরি হারালেন ওসি রফিকুল

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

হেফাজত নেতা মামুনুল হকের রিসোর্ট কাণ্ডের পর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব হারানো মো. রফিকুল ইসলামকে আগাম অবসরে পাঠিয়েছে সরকার।

সোমবার ওসি রফিকুল ইসলামসোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ-১ শাখার এক প্রজ্ঞাপনে রফিকুল ইসলামকে অবসরে পাঠানোর কথা জানানো হয়।

মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাসের সই করা ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, রফিকুল ইসলামের চাকরির মেয়াদ ২৫ বছর পূর্তিতে সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮-এর ৪৫ ধারার বিধান অনুযায়ী ‘জনস্বার্থে’ তাকে চাকরি থেকে অবসর প্রদান করা হলো। অবসরজনিত সব সুবিধা তিনি পাবেন বলেও জানানো হয়েছে।

গত ৪ এপ্রিল রফিকুল ইসলামকে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানা থেকে সরিয়ে পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) হিসেবে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে যুক্ত করা হয়েছিল।

তার আগের দিন সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টে হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক তার কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী নিয়ে যাওয়ার পর স্থানীয় একদল তাকে আটকায়। সেই খবর পেয়ে পুলিশ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সেখানে গিয়েছিলেন।

এর মধ্যে হেফাজতের নেতাকর্মী ও মাদ্রাসার কয়েকশ ছাত্র রয়েল রিসোর্টে হামলা চালায় এবং মামুনুল হককে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়। পরে তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে ভাংচুর চালায়।

আবার মামুনুলের পক্ষে হেফাজতের নেতারা থানায় অভিযোগও করেন, যা গ্রহণ করেছিলেন ওসি রফিক।এখন তাকে অবসরে পাঠানোর পেছনে ওই ঘটনার সংশ্লিষ্টতা আছে কি না, সে বিষয়ে কেউ নিশ্চিত করেনি।

ওই ঘটনার পর বিভিন্ন মামলায় হেফাজতের কয়েকজন নেতাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। মামুনুলও আটক হয়েছেন রোববার।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin