ভারতে ঘুরতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ফতুল্লার শিক্ষার্থী, আহত ৩

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বন্ধুদের সাথে ভারতে ঘুরতে গিয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ফতুল্লার এক শিক্ষার্থী। তার নাম নাঈমুর রহমান প্রান্ত (২৪)।এ ঘটনায় ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপনের ছেলে তাইহান তাবাচ্ছির সোয়াদসহ তিনজন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহতরা গোয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) ভোর রাতে ভারতের গোয়ায় এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত প্রান্ত ফতুল্লার লালপুরের কামাল হোসেনের ছেলে। এদিকে তার মৃত্যুর সংবাদে পরিবারে চলছে শোকের মাতম। প্রান্তের আকস্মিক বিদায়ে স্তব্দ পাড়া প্রতিবেশী,বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয় স্বজন ও শুভাকাংখীগ।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহতেরা হলেন ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপনের ছেলে তাইহান তাবাচ্ছির সোয়াদ (২৫) ও ফতুল্লা থানা গেইট সংলগ্ন আমীর আলী সুপার মার্কেটের মালিক মৃত জহিরুল আলমের ছেলেু আলী আকরাম আকিব (২৬) ও তার ছোট ভাই আলী আরমান আদিব (২২)। আহতদের মধ্যে আদিবের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা যায়।

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নাঈমুর রহমান প্রান্তের চাচা আক্তার হোসেন জানান, তার ভাতিজা বন্ধুদের সাথে রোববার সকাল ১০ টার ফ্ল্যাইটে ভারতের বোম্বে যায়। সেখান থেকে গোয়া যায়। সেখানে প্রাইভেট কার দূর্ঘটনায় প্রান্ত মারা যায়। সর্বশেষ রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে তার সাথে পরিবারের সদস্যদের কথা হয়।

এ বিষয়ে ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার লুৎফর রহমান স্বপন জানান, প্রান্তের সাথে তার স্বজনদের রাত আড়াইটা দিকে সর্বশেষ ফোনে কথা হয়েছিলো। প্রান্ত নিজেই গাড়ী চালাচ্ছিলো। রাত সাড়ে তিনটার দিকে তারা দুর্ঘটনার শিকার হন। পরে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সোয়াদ মোবাইল ফোনে দূর্ঘটনা ও প্রান্তের মৃত্যুর সংবাদটি জানায়।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin