বিয়ে করা ছাড়া কোনো উপায় ছিলো না: পরীমনি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

সময়ের আলোচিত-সমালোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। চলতি বছরের শুরুর দিতে তারকা দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনি জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করেছেন। চলতি বছরের ১৭ অক্টোবর খুব গোপনে বিয়ে করেন তারা। এরপর চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি পারিবারিক আয়োজনে ফের সম্পন্ন হয় তাদের জমকালো বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। আপাতত সন্তান জন্মের অপেক্ষায় মধুর দিন কাটাচ্ছেন এই দম্পতি।

রাজ-পরী এবারই প্রথম একসঙ্গে ভালোবাসা দিবস উদযাপন করেছেন। বিশেষ এই দিবস উপলক্ষ্যে নিজেদের ভালোবাসার গল্প জানাতে একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন তারা। মুমতাহিনা টয়ার উপস্থাপনায় সেখানে এই দম্পতি জানিয়েছেন, তারা যে বিয়ে করবেন সেটা তাদের দুজনের কেউ কখনো ভাবেননি। শুটিংয়ে রাজকে দেখার পর পরীই প্রথম তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তবে বেশিদিন প্রেম করার সুযোগ পাননি, বিয়ে করে ফেলেছেন।

পরীমণি বলেন, ‘আমাদের বিয়ে করা ছাড়া কোনো উপায় ছিল না। একসঙ্গে সারা জীবন থাকার জন্যই আমরা বিয়ে করে ফেলি। রাজের সঙ্গে দেখা হওয়ার পর মনে হয়েছে, তার রাজ্যে তো রানি হওয়াই যায়।’

রাজকে পছন্দের কারণ জানিয়ে নায়িকা বলেন, ‘রাজ যা করে তার মধ্যে একটা বাচ্চামি থাকে। ওটা দেখে মনে হয়েছে, মানুষটা তো আসলে আমার চাওয়ার মতোই।’

অন্যদিকে পরীর প্রেমে পড়ার কারণ হিসেবে রাজ বলেন, ‘শুটিংয়ের কিছুদিন আগে আমার একটা দুর্ঘটনা ঘটে। আমার হাত ভাঙা ছিল। যেহেতু আমি ডান হাত ব্যবহার করতে পারতাম না, তাই বাঁ হাত দিয়ে খাবার খাওয়াসহ অন্য সব কাজ করতাম। পরী এটা খেয়াল করে। এরপর আমি যখনই ভাত খেতাম, পরী আমাকে নিজের হাত দিয়ে খাইয়ে দিত।’

প্রসঙ্গত, মাত্র ১০১ টাকা কাবিনে পারিবারিক আয়োজনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন রাজ-পরী। বিয়েতে উকিল বাবার দায়িত্ব পালন করেছেন নির্মাতা রেদওয়ান রনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin