বন্দরে মুক্তিপনের টাকা তুলে দিলেন ওসি দিপক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

বন্দরে স্কুল ছাত্র অপহরনের পর মুক্তি আদায়ের টাকা উদ্ধার করে বাদীর হাতে তুলে দিয়েছে বন্দর থানা পুলিশ। সোমবার (২১ জুন) দুপুরে বন্দর থানার ওসি দিপক চন্দ্র কুমার সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিক ভাবে অপহৃত স্কুল ছাত্রের মা মামলার বাদী কাজল বেগমের হাতে উদ্ধারকৃত ৪৪ হাজার টাকা তুলে দেন।

জানা গেছে, বন্দরের তিনগাঁও এলাকার প্রবাসী ইমেনর মিয়ার ছেলে স্কুল ছাত্র জিসান (১৫) কে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১ টায় তিনগাঁও এলাকা থেকে অপহরণ হয়। অপহরণকারীরা তার মুক্তিপন হিসাবে স্কুল ছাত্রের মায়ের মোবাইলে ফোন করে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। অন্যথায় তাকে হত্যা করার হুমকি দেয়। স্কুল ছাত্রের মা কাজল বেগম ছেলের মুক্তির জন্য অপহরণকারীদের বিকাশে পর্যায় ক্রমে ৪৫ হাজার টাকা পাঠায়। এর পরেও আরো টাকা দাবি করলে তিনি পুলিশকে বিষয়টি জানায়। তাৎক্ষনিক পুলিশ মোবাইল ট্রাকিং করে অপহরণকারী জুয়েল(৩২)কে আটক করে। জুয়েলের স্বীকারোক্তিতে অপহৃত স্কুল ছাত্র জিসানকে বন্দরের হাজীপুর থেকে উদ্ধার করে এ সময় পুলিশ আরো ২জন অপহরনকারী সজিব(৩০) ও শাওন (২২) কে আটক করে। এ সময় বাকি আরো ৬ অপহরনকারী পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ মুক্তিপনের ৪৫ হাজার টাকার মধ্যে ৪৪ হাজার টাকা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। ৩ আসামীর মধ্যে শাওন আদালতে স্বীকারোক্তি জবানবন্ধী প্রদান করে। সোমবার দুপুরে পুলিশ আদালতের নির্দেশে উদ্ধারকৃত মুক্তিপনের ৪৪ হাজার টাকা বাদী কাজল বেগমের হাতে তুলে দেন।

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিপক চন্দ্র কুমার বলেন, অপহরণের মৌখিক অভিযোগ পেয়েই আমার পুলিশ অভিযান শুরু করি এবং অপহৃত স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করতে সক্ষম হই এবং ৩ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আমি আদালতের নির্দেশে উদ্ধারকৃত মুক্তিপনের টাকা বাদীর হাতে তুলে দিলাম। সেই সাথে বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin