ফতুল্লা হাটের মুল আকর্ষন কালু, দাম হাকছেন ১১ লাখ

শেয়ার করুণ

আসন্ন কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে জমতে শুরু করেছে জেলার হাটগুলো। অল্প-অল্প করে হাটগুলোতে বিভিন্ন জেলা থেকে আসতে শুরু করেছে গরু।

অন্যান্য বারের মত এবারও জেলার ঐতিহ্যবাহী ফতুল্লা হাটে আসতে শুরু করেছে গরু। এবার হাটে উঠেছে বিশাল এক গরু। কুচকুচে কালো বিশাল এই গরুর মালিক গরুর গায়ের রংয়ের সাথে মিল রেখে নাম রেখেছেন কালু। কালুর মালিক কালুর জন্য দাম হাকছেন ১১ লাখ টাকা। কালুর মালিক জানান, কালুর গায়ে মাংস হবে আনুমানিক ৩০ মন। ৪ বছর বয়সী এই কালুকে নিজের সন্তানের মত করেই পালন করেছেন তিনি। সিরাজগঞ্জে নিজের বাড়িতে রেখে প্রাকৃতিক উপায়ে লালনপালন করে বড় করেছেন কালুকে। সিন্ধি জাতের এই বিশালাকার গরুকে নিয়ে ফতুল্লা হাটে আসা ক্রেতাদের মাঝে লক্ষ্য করা গেছে ব্যাপক আগ্রহ। হাটের সব চেয়ে বড় গরুকে এক নজর দেখার জন্য সবাই ভিড় করছেন কালুর সামনে। কেউ কেউ কালুর সাথে নিজেকে সেলফি বন্দি করছে।

ফতুল্লা হাট কর্তৃপক্ষ নারায়ণগঞ্জ বুলেটিনকে জানান, ঐতিহ্যবাহী এই হাটে এবারো দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কোরবানির পশু আসবে। করোনা পরিস্থিতিকে সামনে রেখে হাট কর্তৃপক্ষ ব্যপক প্রস্তুতি নিয়েছে। ক্রেতা- বিক্রেতাদের মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। হাটের বিভিন্নপ্রান্তে হাত ধোয়ার পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে। এছাড়া অন্যান্যবারের মত নিরাপত্তার জন্য নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবকদের পাশাপাশি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সাহায্য নেয়া হবে। জাল টাকা শনাক্তের জন্য থাকবে মেশিন। আর মাইকে বাজতে থাকবে করোনার স্বাস্থ্যসুরক্ষা সম্পর্কিত বার্তা।

নিউজটি শেয়ার করুণ