ফতুল্লায় স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির পদ নিয়ে চাচা-ভাতিজার লড়াই

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলার ফতুল্লার মুসলিমনগর কেএম উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির দাতা সদস্য নিয়ে চাচা-ভাতিজার লড়াই শুরু হয়ে গেছে।

চাচা এমএ মান্নান এবং ভাতিজা বিল্লাল হোসেন দুজনই স্কুলের দাতা সদস্য প্রার্থী হয়েছেন। চাচা ভাতিজা সহ স্কুলের ৯জন দাতা হয়েছে। এই দাতাদের মধ্যে ম্যানেজিং কমিটির একজন দাতা সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হবেন।

দাতা সদস্য হওয়ার জন্য মঙ্গলবার ৯ জন দাতা প্রার্থী হওয়ায় এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সস্পাদক এমএ মান্নান ও যুবলীগ নেতা বিল্লাল হোসেনকে নিয়ে আলোচনা চলছে। দাতা সদস্য হওয়ার জন্য মান্নান ও বিল্লাল আলাদা ভাবে প্যানেল করে তারা ছাড়াও তাদের লোকদের দাতা করেছেন বলে লোকমুখে শুনা যাচ্ছে।

স্কুল সূত্রে জানা গেছে, মুসলিমনগর কেএম উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় এডহক কমিটির মাধ্যমে স্কুল পরিচালিত হচ্ছে। এই কমিটি আগামী ৬ মাসের মধ্যে অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠান সস্পন্ন করবেন। আর দাতা সদস্য হতে হলে নির্বাচনের ৬ মাস আগে দাতা হওয়ার নিয়ম থাকায় মঙ্গলবার ৯ জন দাতা হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন দাতা সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হবেন।

এ ব্যাপারে স্কুলের প্রধান শিক্ষক জনাব ইব্রাহিম জানান, গত মঙ্গলবার এমএ মান্নান, বিল্লাল হোসেন সহ ৯ জন দাতা হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন দাতা সদস্য হিসাবে নির্বাচিত হবেন। আগামী ৬ মাস পর ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ম্যানেজিং কমটির নির্বাচনের পরই দাতা সদস্যদের থেকে একজনকে নির্বাচিত করা হবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin