ফতুল্লায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ফতুল্লায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গার্মেন্টকর্মীকে ধর্ষণ করেছে কথিত প্রেমিক। বর্তমানে ওই তরুণী ৭ মাসের আত্নঃসত্ত্বা। ঘটানটি ঘটেছে ফতুল্লার শাসনগাঁও বিসিক এলাকায়। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে ওই তরুনী ফতুল্লা মডেল থানায় কতিথ প্রেমিক সোহাগ (৩৩) এর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করে।

অভিযুক্ত সোহাগ ময়মনসিংহ জেলার ফুলপুর থানার ফতেহপুর গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আশসি কুমার দাস বলেন, ফতুল্লার বিসিক এলাকায় পাশাপাশি হোসিয়ারী কারখানায় কাজ করেন ওই তরুনী ও অভিযুক্ত সোহাগ। এতে তাদের মধ্যে পরিচয় হয় এবং একটা সময় তাদের মধ্যে প্রেম ভালোবাসা হয়। আর এ ভালোবাসার সুযোগ নিয়ে তরুনীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় একাধীকবার ধর্ষন করেছে সোহাগ।

তিনি আরও বলেন, সর্বশেষ গত বছরের ২০ আগষ্ট বিকাল ৩টায় ওই তরুনীর ধর্মগঞ্জের ভাড়া বাসায় গিয়ে সোহাগ ধর্ষন করে। এরপর বিয়ের জন্য তাগিদ দিলে সে অস্বীকার করে আত্মগোপন করেছে। আমরা মামলা গ্রহন করেছি। আসামীকে গ্রেপ্তারের চেস্টা চলছে।

সুত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin