ফতুল্লায় নৌকা প্রত্যাশী অর্ধডজন নেতা

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

দীর্ঘদিনের মামলা জটিলতার তিন দশক পর ফতুল্লা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষনায় নড়েচড়ে বসেছে ফতুল্লাবাসী। ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কৌশলে প্রচারণা শুরু করেছেন প্রার্থীরা। বিএনপি নির্বাচনে না থাকায় নৌকার টিকিট নিশ্চিত করতে জোর তৎপরতা শুরু করেছেন অন্তত অর্ধডজন সরকারী দলের নেতারা।

সুত্রমতে, চেয়ারম্যান প্রার্থীদের দৌড়ে সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন ফতুল্লা ইউনিয়নের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন। ১৯৯৩ সালের সর্বশেষ নির্বাচনে নির্বাচিত চেয়ারম্যান নূর হোসেনের মৃত্যুর পর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে লুৎফর রহমান স্বপন দায়িত্ব পালন করছেন। কিছুদিন আগে ফতুল্লা জামে মসজিদে অসুস্থতার কারনে নির্বাচন না করার ঘোষনা দিলেও ফতুল্লাবাসী তার ঘোষনাকে নির্বাচনের কৌশল হিসেবেই মনে করছেন।

নৌকা প্রত্যাশীদের দৌডে এগিয়ে আছেন ফতুল্লা থানা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল আলী। ইতিমধ্যেই তিনি সরকারের উপরের মহলে নৌকা প্রতীক নিশ্চিতে লবিং শুরু করেছে জানায় একটি সূত্র।এছাড়া তার সমর্থকরাও তার পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ ব্যানার ফেস্টুন করে প্রচারনা শুরু করে দিয়েছেন।

ফতুল্লা থানা আওামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ফরিদ আহম্মেদ লিটনও নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার জন্য বেশ কিছুদিন ধরেই কাজ করে যাচ্ছেন। তার সমর্থকরাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং ব্যানার, ফেস্টুন করে নিজেদের অবস্থান জানান দিচ্ছেন।

এছাড়াও নৌকা প্রত্যাশী হিসেবে নিজের অবস্থান জানান দিচ্ছেন ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ছাত্রলীগ সভাপতি হাজী আবু শরিফুল হক।

ফতুল্লা থানা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম ও নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করার জন্য লবিং করছেন বলে জানা গেছে অপর একটি সূত্র থেকে। তার অনুসারীরা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারনা চালাচ্ছেন।

তবে ভোটারদের ধারণা শেষ পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের মনোনীত প্রার্থীই শেষ পর্যন্ত নৌকার টিকেট পাবেন। ফতুল্লা বাসীর প্রত্যাশা দীর্ঘ বিরতিত পর অনুষ্ঠিতব্য ভোটে উৎসবমুখর পরিবেশে তারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন তাদের প্রতিনিধি। জেলার বানিজ্যের অন্যতম প্রানকেন্দ্রের উন্নয়নে যিনি এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে একটি আধুনিক ফতুল্লা গড়ার কাজ করবেন তাকেই ফতুল্লার অবিভাবক বানাতে চান।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin