ফতুল্লায় ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করায় যুবককে এলাকাবাসীর গণধোলাই

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ফতুল্লায় কলেজ ছাত্রীকে উত্যক্ত করার অপরাধে হাসান (৪০) নামের এক যুবককে গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) সদর উপজেলার ফতুল্লায় সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফতুল্লা সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে অভিযুক্ত যুবককে জরিমানা করেন এবং তাকে সতর্ক করে দেন যাতে ওই তরুণীকে উত্যক্ত না করা হয়।

অভিযুক্ত হাসান ফতুল্লার মুসলিম নগর এতিমখানা পশ্চিমপাড়া এলাকার মৃত ফটিক চাঁনের ছেলে।

এলাকাবাসী ও প্রতক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ফতুল্লার মুসলিম নগর দক্ষিন পাড়া মাষ্টারবাড়ী এলাকার কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল হাসান। শিক্ষার্থীকে উত্ত্যক্ত না করতে এলাকাবাসী বলার পরও কোন কর্ণপাত করেনি হাসান। বৃহস্পতিবার বিকেলে কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী কোচিং করতে চাষাড়া যাওয়ার পথে রাস্তা গতিরোধ করে বখাটে হাসান। একপর্যায়ে কলেজ ছাত্রীকে নানা ধরনের কু-প্রস্তাব দেয় সে। পরে স্থানীয় লোকজন হাসানকে আটক করে মারধর করে। পরে খবর পেয়ে ফতুল্লা সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল ইসলাম ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পরে ঘটনার তদন্ত করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে বখাটের কাছে মুচলেকা নেন। যাতে ভবিষ্যতে কলেজ ছাত্রীকে কখনো উত্ত্যক্ত না করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আজিজুল ইসলাম জানান, কলেজ ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের কারনে স্থানীয় লোকজন উত্যক্তকারীকে আটক করে আমাদের সংবাদ দেয়া হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ভবিষ্যতে উক্ত কলেজ ছাত্রীকে কখনো উত্ত্যক্ত করবে না এই মর্মে মুচলেখা দেয় হাসান নামের এক যুবক। প্রাথমিক ভাবে তাকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin