ফতুল্লার ভোলাইলে স্ত্রী পরিচয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষন, গ্রেফতার ধর্ষক প্রেমিক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলার ফতুল্লায় গার্মেন্ট কর্মী প্রেমিকাকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে পালিয়ে যাওয়া প্রেমিক জয় আলীকে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা থানা পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) দুপুরে ফতুল্লার ভোলাইল গেদ্দারবাজার এলাকা থেকে প্রেমিক জয়কে গ্রেপ্তার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ ।

স্থানীয় সূত্র জানায় ভুক্তভোগী নারী ও জয় আলী একই গার্মেন্টসে কাজ করায় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হয়। পরে গত ২২ অক্টোবর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফতুল্লার পূর্ব গোপাল নগর এলাকায় হাজী দেলোয়ারের ভাড়াটিয়া বাড়িতে একটি রুম ভাড়া নেয় জয় আলী। সে ভুক্তভোগী সুফিয়া বেগমকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ভাড়া বাসায় উঠে। মিথ্যা বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জয় আলী একাধিকবার সুফিয়া বেগমকে ধর্ষন করে। গত ৩১ অক্টোবর বিয়ের জন্য জয় আলীকে চাপ দিলে আবারো ধর্ষন করে পালিয়ে যায়। তখন ভুক্তভোগী সুফিয়া বেগম বাড়িওয়ালাসহ আশপাশের সবাইকে বিষয়টি জানালে সে থানায় গিয়ে মামলা করে।

গ্রেপ্তারককৃত জয় আলী কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার দৌলতখালী গ্রামের বাবলু রহমানের ছেলে। সে ফতুল্লার ভোলাইল গেদ্দারবাজার এলাকার সবুজ খানের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতো এবং দক্ষিন মাসদাইরের ফারিয়া গার্মেন্টে কর্মরত ছিলেন।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, এঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামীকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin