প্রভাব বিস্তার করতে গিয়ে গনপিটুনির শিকার ছাত্রলীগের সাবেক সা. সম্পাদক রাব্বানী

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

মাদারীপুরের রাজৈরে ইউনিয়ন নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী আহত হয়েছে। তবে এই ঘটনায় স্থানীয়দের কাছ থেকে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।

গোলাম রাব্বানীর দাবি, জাল ভোট ঠেকাতে গিয়ে তিনি হামলার শিকার হয়েছেন। তবে প্রতিপক্ষের লোকজন দাবি, রাব্বানী প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করলে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ঘটনাটি মাদারীপুর রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নের গাংকান্দি সরকারি বিদ্যালয় কেন্দ্রে।

রবিবার বেলা পৌনে ৩টার দিকে
এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, ইউপি নির্বাচনে ইশিবপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম রব্বানীর মামা সালাহ উদ্দিন আহমেদ চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন।

ঈশিবপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের গাংকান্দি সরকারি বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশারফ মোল্লার ছেলে সোহেলের সাথে সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

এসময় রাব্বানী আহত হন।
হামলায় উভয়পক্ষের আরও তিনজন আহত হয়। পরে স্থানীয়রা রাব্বানীসহ অন্যদের রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। রাব্বানীর হাতে সেলাই দিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় চলে গেছে রাব্বানী।

গোলাম রাব্বানী সাংবাদিকদের বলেন, ‘নির্বাচনে মোশারফ মোল্লার লোকজন প্রকাশ্যে ভোট কেটে নেয়ার চেষ্টা করছিল। পরে আমিসহ কিছু লোক গিয়ে বিষয়টি জানার চেষ্টা করলে, আমাকে অস্ত্র দিয়ে কোপ দেয়া হয়। আমি থানায় অভিযোগ করবো। ’

চেয়ারম্যান প্রার্থী মোশাররফ মোল্লা বলেন, প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করলে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া হয়েছে। জাল ভোট নিয়ে দ্বন্দ্ব হয়নি।

কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক বলেন, ‘কেন্দ্রের ভেতর তেমন কোনো কিছু হয়নি। কেন্দ্রের বাইরে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ভোট সুষ্ঠু ও সুন্দর হয়েছে। কোনো জাল ভোট বা ভোট কারচুপির ঘটনা ঘটেনি। বাইরে কিছু হলে সেটা তো আমার দেখার বিষয় নয়। ’

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো. সাদিক বলেন, ‘নির্বাচনে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ঘটতে পারে। আমি এখনও রাব্বানীর ওপর হামলার কথা শুনেনি। থানায় অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ’

সুত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin