প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে আপিল খারিজ, টিকে রইলো সময়ের নারায়ণগঞ্জ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জের ডিক্লেয়ারেশন বাতিলে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল খারিজ হয়ে গেছে। ২৪ জানুয়ারী রোববার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিলেড ডিভিশনে ওই আপিলের শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। শুনানী শেষে বেঞ্চ আপিলটি খারিজ করে দেয়।

এর আগে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে চেম্বার জজে আপিল করা হয়। চেম্বার জজ উভয় পক্ষের শুনানী শেষে আপিলেড ডিভিশনের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য প্রেরণ করেন।

সময়ের নারায়ণগঞ্জের পক্ষে শুনানীতে অংশ নেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার। রাষ্ট্রপক্ষে একজন অতিরিক্ত অ্যাটর্নী জেনারেল শুনানী করেন।

তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, ‘শুরু থেকেই আমি বলে আসছিলাম নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক অন্যায়ভাবে সময়ের নারায়ণগঞ্জের ডিক্লেয়ারেশন বাতিল করেছিল। আজ সর্বোচ্চ আদালতে সেটাই প্রমাণিত হলো।’

প্রসঙ্গত ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তথা জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন ‘দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জ’ পত্রিকার ঘোষণা পত্র বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি করেন। এ প্রজ্ঞাপনে ছাপা খানা ও প্রকাশনা ১৯৭৬ এর ১০ ধারা অনুযায়ী ঘোষণা পত্র বাতিলের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে।

সেই সময় নারায়ণগঞ্জের জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তথা জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, ‘চলচিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর (ডিএফপি) থেকে চিঠি দিয়েছেন সময়ের নারায়ণগঞ্জের প্রকাশনা ও ছাপাখানা ঠিক না। ওই চিঠির প্রেক্ষিতে সময়ের নারায়ণগঞ্জের সম্পাদককে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য সুযোগ দেয়া হয়েছে। তারপরই পত্রিকাটির ডিক্লারেশন বাতিল করা হয়।’

যার প্রেক্ষিতে গত ২০ অক্টোবর ‘দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জ’ পত্রিকার ডিক্লারেশন বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের বিচারপতি জেবিএম হাসান এবং বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। ফলে তখন থেকেই পত্রিকা প্রকাশে আর কোন বাধা রইলো না। পরেই রাষ্ট্রপক্ষ হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার উপর চেম্বার জজে আপিল করেন। চেম্বার জজ শুনানী করে আপিলেড ডিভিশনে পাঠায়।

প্রসঙ্গত ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর থেকে দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জ নিয়মিত প্রকাশ হয়ে আসছে। পাঠকপ্রিয়তায় পত্রিকাটি শীর্ষস্থানে ছিল।

সূত্রঃ নিউজ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin