প্রতিটি ইউনিয়নে আমরা জনসচেতনতা বৃদ্ধি করার চেষ্টা করছিঃ জেলা প্রশাসক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেছেন, আমরা দেখছি যে আমাদের নারায়ণগঞ্জে করোনার সংক্রামন দিন দিন বাড়ছে। এর প্রতিরোধে উপজেলা প্রশাসনসহ সকল সরকারি কর্মকর্তারা কাজ করে যাচ্ছে, ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। প্রতিটি ইউনিয়নে আমরা জনসচেতনতা বৃদ্ধি করার চেষ্টা করছি, সবার মাঝে মাস্ক বিতরন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই আমরা পার্ক, শহীদ মিনারসহ সকল বিনোদন কেন্দ্র গুলো ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ করে দিয়েছি।


বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে নারায়ণগঞ্জে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিং করার সময় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বিষয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা জেলার সকল প্রতিষ্ঠানকে একট্রা হেলথ কেয়ার এর ব্যবস্থা করার জন্য বলেছি। এ ছারা আমরা পোশাক শিল্প কারখানা গুলোকে আইসোলেশনের ব্যবস্থা করতে বলেছি। পরিবহন গুলোতে স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। মার্কেট গুলোর মালিকদের বলা হয়েছে স্বাস্থ্য সচেতনতা বজায় রাখতে, এতে যদি ব্যার্থ হয় তাহলে তাদেরকে পানিশমেন্টের আওতায় আনা হবে। হাসপাতাল গুলোতে আমরা অক্সিজেনের পরিমান বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, আগামী কাল থেকে এনসিসি’র সাথে আলাপ করে করোনার সেম্পল কালেকশনের আরও ২ টি বুথের ব্যবস্থা করবো। আমাদের এখানের এমপি যারা আছেন মেয়র মহোদয় মন্ত্রী মহোদয় সবাইকে নিয়ে এক সাথে আলাপ করে আমি আশা করছি আমরা করোনা মোকাবেলা করতে পারবো। আমরা রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের বলেছি সকল সভা সমাবেশ বন্ধ রাখতে, এ বিষয়ে আমরা একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করেছি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) (উপ সচিব পদ প্রাপ্ত) মোহাম্মদ সেলিম রেজা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শামীম বেপারীসহ সাংবাদিকবৃন্দ।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin