পৃথিবীর প্রথম করোনার টিকা জনসাধারণের জন্য খুলে দিলো রাশিয়া

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জনসাধারণের ওপর প্রয়োগের জন্য স্পুটনিক ভি টিকার অনুমতি দিয়েছে রাশিয়া সরকার। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে।

রাশিয়ার গামালেয়া ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টার অব এপিডেমিওলজি ও মাইক্রোবায়োলজি এবং রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের যৌথ উদ্যোগে স্পুটনিক ভি টিকা তৈরি করা হয়েছে।

প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে নির্মিত ‘গ্যাম-কোভিড-ভ্যাক’ স্পুটনিক ভি সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা সাফল্যের সঙ্গে পার করেছে।

মস্কোর মেয়র সার্গেই সোবিয়ানিন আশা প্রকাশ করেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই বেশিরভাগ শহরবাসীর করোনা টিকা গ্রহণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে যাবে।

রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, খুব শিগগিরই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে এই টিকার প্রথম ব্যাচ পৌঁছে যাবে।

গত ১১ আগস্ট বিশ্বের প্রথম কোভিড-১৯ টিকা নথিভুক্ত করে রাশিয়া। চলতি মাসেই ভারতে এই টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। শুধু ভারতই নয়, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ফিলিপাইন এবং ব্রাজিলে ‘স্পুটনিক ভি’-এর ক্লিনিকাল ট্রায়াল হবে। চলতি বছর অক্টোবর বা নভেম্বরেই জানা যাবে এই ক্লিনিকাল ট্রায়ালের ফলাফল।

এদিক বিশ্বখ্যাত চিকিৎসাসংক্রান্ত পত্রিকা ‘ল্যানসেট’-এর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্পুটনিক ভি আপাতত নিরাপদ বলেই মনে হচ্ছে। এতে কোনও গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এখনও পর্যন্ত পাওয়া ফলাফলে দেখা গেছে, এই টিকা প্রয়োগে শরীরে দীর্ঘমেয়াদী অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin