পাবনায় গৃহবধূ ধর্ষণ মামলায় ইউনিয়ন আ.লীগ নেতা গ্রেফতার

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

পাবনার চাটমোহরে এক গৃহবধূর দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় গোলজার হোসেন (৩৫) নামে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (০৭ অক্টোবর) রাতে তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত গোলজার নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে ও জোনাইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুল ইসলাম মামলা ও গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে তিনি জানান, চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের ওই নারীর স্বামী দুই বছর আগে ইরাকে পাড়ি জমান। সেখান থেকে তিনি তার স্ত্রীর কাছে নিয়মিত টাকা পাঠাতেন। এরই মধ্যে পার্শ্ববর্তী নাজিরপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা গোলজার হোসেন আবদুর রহিমের স্ত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন এবং একপর্যায়ে অনৈতিক মেলামেশার ভিডিও ধারণ করেন।

এরপর থেকে, গৃহবধূর অশ্লীল ছবি প্রচারের ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন সময় তাকে ধর্ষণ করেন এবং ৫ লাখ ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন আওয়ামী লীগ নেতা গোলজার হোসেন। গত এক মাস আগে ওই নারীর স্বামী বাড়ি ফিরে আসেন এবং টাকা-পয়সার হিসাব চান।

এমতাবস্থায় তার স্ত্রী জানায়, গোলজারের কাছে ৫ লাখ ২০ হাজার টাকা রাখা আছে। তার স্বামী টাকা চাইলে গোলজার টালবাহানা করতে থাকেন। গত ২ অক্টোবর রহিম আবারও টাকা চাইতে গেলে গোলজার গ্যাং তাকে মারপিঠ করে আহত করেন। এ নিয়ে থানায় তার স্বামী একটি অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। 

বুধবার (৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিষয়টি মীমাংসার জন্য সালিস বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সালিসে ওই গৃহবধূ ধর্ষণ ও নির্যাতনের বিষয়টি প্রকাশ করেন। পরে সালিস ভণ্ডুল হয়ে গেলে ওই গৃহবধূ থানায় আওয়ামী লীগ নেতা গোলজার হোসেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন। রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ আসামি গোলজার হোসেনকে গ্রেফতার করে। 

জোনাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি তোজাম উদ্দিন গ্রেফতারকৃত গোলজার হোসেনের পদবি নিশ্চিত করেছেন।

সূত্রঃ সময় টিভি নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin