পদ থেকে সড়ে দাঁড়ালেন মাওলানা আব্দুল আউয়াল

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমির ও নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির আমির পদ থেকে সড়ে দাঁড়ালেন মাওলানা আব্দুল আউয়াল।

হেফাজতে ইসলামের ডাকে পালিত হরতালের একদিন পর সোমবার (২৯ মার্চ) এই ঘোষণা দেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হতে চাইলে মাওলানা আব্দুল আওয়াল বলেন, ‘আমি বিস্তারিত একটি ভিডিও বার্তায় তুলে ধরেছি। সেখান থেকে আপনার সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন’।

সেই ভিডিও বার্তায় আব্দুল আওয়ালকে বলতে দেখা যায়, ‘অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে হরতালের দিন বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ আর আর্মি আমাকে মসজিদে নজর বন্দী করে রেখে ছিলেন। তাঁরা আমাকে স্পষ্ট করে জানিয়েছে, উপর থেকে সরাসরি এ্যাকশেনে যাওয়ার অর্ডার রয়েছে। তাই আমি মিছিল নিয়ে হরতাল পালন করতে পারিনি। কিন্তু হেফাজতের একদল অতি উৎসাহিত লোক আমাকে বুঝতে চাইছে না। অথচ, সেদিন যদি আমি প্রশাসনকে উপক্ষা করে বের হতাম, তাহলে হয়তো মসজিদে নামাজ পড়ার অবস্থায় থাকতো না। মসজিদের সামনে কয়েকটা লাশও পড়তে পারতো।’

সেই ভিডিও বার্তায় আব্দুল আওয়ালকে আরও বলতে দেখা যায়, ‘তখন কিন্তু আপনারাই লাশের পক্ষ নিয়ে বলতেন, মায়ের বুক খালি করে তোমাকে কে নেতৃত্ব দিতে বলেছে? তাই আমি এদিকেও যেতে পারি নি, ওই দিকেও যেতে পারিনি। এখন আমার একটাই রাস্তা। আমি আমার জিম্মাদারী ছেড়ে দিলাম। আমি হেফাজত ইসলামের নেতৃত্বে আর থাকবো না। আমার আমির পদ দরকার নাই। আমার পক্ষ থেকে আর কোন দিন ঘোষণা আসবে না। তোমরা যারা অতি উৎসাহীওয়ালা আছো, তোমরা বাবা হেফাজত ইসলাম করো।’

সেই ভিডিও বার্তায় আব্দুল আওয়ালকে আরও বলতে দেখা যায়, ‘তখন কিন্তু আপনারাই লাশের পক্ষ নিয়ে বলতেন, মায়ের বুক খালি করে তোমাকে কে নেতৃত্ব দিতে বলেছে? তাই আমি এদিকেও যেতে পারি নি, ওই দিকেও যেতে পারিনি। এখন আমার একটাই রাস্তা। আমি আমার জিম্মাদারী ছেড়ে দিলাম। আমি হেফাজত ইসলামের নেতৃত্বে আর থাকবো না। আমার আমির পদ দরকার নাই। আমার পক্ষ থেকে আর কোন দিন ঘোষণা আসবে না। তোমরা যারা অতি উৎসাহীওয়ালা আছো, তোমরা বাবা হেফাজত ইসলাম করো।’

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin