নেতারা যেমন পূজা উদ্বোধন করেন, সাকিবও তা-ই করেছেনঃভিপি নূর

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

সাকিব আল হাসানের পূজায় অংশগ্রহণের প্রসঙ্গে ডয়চে ভেলে বাংলার সাপ্তাহিক ইউটিউব টকশো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়’-এর এবারের পর্বে এমনটাই বললেন ডাকসুর সাবেক ভিপি মোহাম্মদ নূরুল হক নূর৷

ডয়চে ভেলে বাংলার সাপ্তাহিক ইউটিউব টকশো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়’-এর এবারের পর্বে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন এবং ডাকসুর সাবেক ভিপি মোহাম্মদ নূরুল হক নূর৷ এবারের আলোচনার প্রশ্ন ছিল রাজনৈতিক সুবিধা পেতে কি ধর্মকে ব্যবহার করা যায়?

নূরুল হক নূরের প্রতি সঞ্চালক প্রশ্ন রাখেন, তাঁর আন্দোলন ও রাজনৈতিক সক্রিয়তা ইস্যুনির্ভর কিনা৷ কারণ সম্প্রতি ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের কলকাতায় একটি পূজা উদ্বোধন করতে যাওয়া ও এরপর এক ব্যক্তির তাঁকে মৃত্যুর হুমকি দেওয়ার ঘটনায় নূর নীরব ছিলেন৷

এর জবাবে নূর বলেন, ‘‘আমি এই হুমকির ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই৷ আমি উদ্বিগ্ন যে সমাজ হিসাবে আমরা কোন জায়গায় গিয়ে পৌঁছেছি৷ সাকিবের মতো একজন আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড় সকল ধর্মের মানুষের কাছেই প্রিয়৷ আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী বা বিরোধী দলীয় নেতারা যেমন পূজায় ঘুরে মণ্ডপ উদ্বোধন করেন,  সাকিবও কলকাতায় গিয়ে তা-ই করেছেন৷ তারপর তাঁকে যে হুমকি দেওয়া হয়েছে, সেটা উগ্রতার প্রকাশ৷”

তিনি নিজে এমন কোনো পূজায় অংশগ্রহণ করবেন কি না এবিষয়ে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে নূরুল হক নূর বলেন, ‘‘আমি যাব না কেন, আমি তো আগেই গিয়েছি৷ জগন্নাথ হলের সরস্বতী পূজায় গেছি, অন্যদের মণ্ডপ ঘুরিয়ে দেখিয়েছি৷”

ধর্মকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহারের প্রসঙ্গে যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন বলেন, ‘‘রাজনীতিতে ধর্ম দক্ষিণ এশিয়ায় সব সময়েই ব্যবহৃত হয়েছে, যা অস্বীকার করার উপায় নেই৷ দেশভাগও সেই একই কারণে হয়েছে৷ কিন্তু এখন কারা, কীভাবে তা করছে, সেটা সময় বলবে৷ আসলে রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার সবচেয়ে সহজ৷ তাহলে উন্নয়ন লাগেনা, সমাজসেবাও বেশি না করলে হয়৷ তাহলেই দ্রুত নেতা হওয়া যায়৷ আওয়ামী লীগ যতদিন আছে, ততদিন তাদের ধর্মকে ব্যবহার করার কোনো প্রয়োজন নেই৷ তারা ধর্মনিরপেক্ষতার পক্ষে৷ নীতিগতভাবে তারা অসাম্প্রদায়িক৷ ”

অনুষ্ঠানের আজকের পর্বে এছাড়াও আলোচিত হয় নূরের সাথে বাংলাদেশের গণমাধ্যমের বর্তমান সম্পর্ক ও সরকারপক্ষ থেকে গণমাধ্যমের ওপর চাপের প্রসঙ্গও৷ আলোচিত হয় দুই আলোচকের ভবিষ্যৎ রাজনৈতিক পরিকল্পনা নিয়েও৷

সূত্রঃ ডয়চে ভেলে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin