নির্বাচনে সহিংসতা বরদাস্ত করা হবে নাঃ এসপি জায়েদুল

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম বলেছেন, ১১ তারিখ থেকে নির্বাচন। আমরা বলতে চাই নির্বাচনে কোন ধরনের সহিংসতা বরদাস্ত করা হবে না। যারা নির্বাচন করবেন আপনারা যদি সুষ্ঠু নির্বাচন চান তাহলে গণতন্ত্রের রীতি নীতি মেনে কাজ করবেন। আর যদি আপনারা জেলে যেতে চান নির্বাচনের আগে বা পরে সে ক্ষেত্রে আপনারা এ ধরনের কাজ আপনাদের নিজ দায়িত্বে করতে পারবেন। জেলা পুলিশ সুপার হিসেবে আপনাদের কেন ধরনের কোন সংঘর্ষে বা কোন নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করা বরদাস্ত করা সম্ভব হবে না।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ লাইনসে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আমরা চাই একটি শক্ত ও জবাবদিহিতা মূলক প্রশাসন। আমরা চাই বিট পুলিশিং কমিউনিটি পুলিশিং। যেখানে আমরা থানা থেকে বসে বসেই সকলের সাথে যোগাযোগ করতাম। আমরা এখন বলেছি যে আমরা প্রত্যেকটি পাড়া মহল্লায় যেতে চাই, প্রতিটি বিটে যেতে চাই। আপনাদের প্রত্যেকের কাছে আমাদের বিট পুলিশের সদস্যরা যাবে। আমাদের প্রত্যেকটি বিট অফিসার সে বিটে যাই থাক আমাদের মেবাইলে চলে আসে।

যদি সে না যায় তখন এটা লাল হয়ে যায়। তিনি বলেন, আমার এ ২২ মাসে কোন জনপ্রতিনিধি বা সাংসদ আমাকে কোন তদবির করতে আসেননি সেজন্য আমি তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আমি নারায়ণগঞ্জে ২২ মাস খুব সুখে শান্তিতে আছি, ভাল আছি। নারায়ণগঞ্জে ২২ মাস কল্পনা করা যায় না। কারণ এ জেলার বয়স ২৬ বছর এখানে পুলিশ সুপার এসেছে ২৭ জন। গত ১২ বছরে এসেছেন ১২ জন তারা এক বছর পূর্ণ করতে পারেনি। এখানে মাত্র ৭জন পুলিশ সুপার দুই বছর পূর্ণ করতে পেরেছেন। সেই জেলায় ২২ মাস কাজ করা আমি মনে করি একটা বিশাল ব্যাপার।

পুলিশ সুপার বলেন, আমি আগে দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর নারায়ণগঞ্জের পার্শ্ববর্তী জেলা মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার হিসেবে ছিলাম। আমার কাছে মনে হয়েছিল আগে বিভিন্ন মিডিয়ার কারণে আমার বলতে দ্বিধা নেই যে নারায়ণগঞ্জ সম্পর্কে এত নৈতিবাচক সংবাদ আমরা দেখেছি, মনে হত এটা বাংলাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন ছিল। কিন্তু আমি সবসময় বিশ্বাস করতাম নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্য অত্যাধিক সমৃদ্ধ ছিল।

এটি বাংলাদেশের একমাত্র জেলা যা একই সাথে জেলা, শিল্পনগরী এবং পর্যটনকেন্দ্র। এটি ছিল প্রাচীন বাংলার রাজধানী। আমি দেখেছি এখানে মানুষ এবং মানুষের মাঝে সে ঐতিহ্য তাদের ভেতরে আছে। আমরা যারা এখানে আছি নারায়ণগঞ্জবাসী নারায়ণগঞ্জের প্রশাসনসহ সকলে মিলে তা করতে পেরেছি এবং সারা বাংলাদেশকে দেখাতে পেরেছি যে নারায়ণগঞ্জ একটি অস্থিতিশীল জনপদ নয়। নারায়ণগঞ্জ একটি সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত। আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি যে নারায়ণগঞ্জকে উন্নয়নে এবং উন্নত জেলা হিসেবে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

সূত্রঃ নিউজ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin