না ফেরার দেশে প্রিন্স ফিলিপ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ মারা গেছেন। শুক্রবার (০৯ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে বাকিংহ্যাম প্যালেস।

দীর্ঘদিন ধরে নানা অসুস্থতায় ভুগছিলেন ৯৯ বছর বয়সী প্রিন্স ফিলিপ। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে ৯৯ বছর বয়সে মারা যান ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বামী ডিউক অব এডিনবরা প্রিন্স ফিলিপ। স্বামীর মৃত্যুর ঘোষণা দিয়েছেন রানি নিজেই।

এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাকিংহ্যাম প্যালেস। তারা জানায়, স্বাভাবিকভাবেই মারা যান ফিলিপ।

তার মৃত্যুর পরপরই অর্ধনমিত করা হয় ব্রিটেনের জাতীয় পতাকা। ডিউক অব এডিনবরার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিশ্ব নেতারাও।

১৯৪৭ সালে রানি এলিজাবেথের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন প্রিন্স ফিলিপ। এর পাঁচ বছর পর ব্রিটিশ সিংহাসনে আরোহণ করেন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। ১৯৫২ থেকে এ পর্যন্ত ২২ হাজারের বেশি একক সরকারি কর্মসূচিতে অংশ নেন নৌবাহিনীর সাবেক এই কর্মকর্তা। ২০১৭ সালে সব ধরনের দায়িত্ব থেকে অবসরে যান তিনি।

বেশ কয়েক বছর ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন প্রিন্স ফিলিপ। সবশেষ গত ফেব্রুয়ারিতে অসুস্থ বোধ করায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। দীর্ঘ একমাস হাসপাতালে থাকার পর গেল ১৫ মার্চ বাকিংহ্যাম প্যালেসে ফেরেন তিনি।

১৯২১ সালের ১০ জুন গ্রিক আইল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন প্রিন্স ফিলিপ। তার বাবা এন্ড্রো ছিলেন গ্রিস এবং ডেনমার্কের প্রিন্স। আর তার মা ছিলেন কুইন ভিক্টোরিয়ার বংশধর। মৃত্যুর সময় চার সন্তান রেখে গেছেন প্রিন্স ফিলিপ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin