না.গঞ্জ থেকে ২দিনে ২৮ জন হেফাজতের কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

রিসোর্টে কথিত দ্বিতীয় স্ত্রীসহ হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হককে অবরুদ্ধের জেরে ও হেফাজতের ডাকা হরতালের দিন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সহিংসতার ঘটনায় গত ২দিনে ২৮ জন কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) রাত পৌনে ১১টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

তিনি বলেন, সন্ধ্যায় সোনারগাঁওয়ে একটি মাদ্রাসায় গোপনে বৈঠক করার সময় হেফাজতের ৭জন। পরে আরও ১ জন। এর আগে সিদ্ধিরগঞ্জ ও সোনারগাঁয়ে ৫জনসহ এখন পর্যন্ত মোট ২৮ জন কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতদের সোনারগাঁও থানা পুলিশের দায়ের করা দুইটি মামলা ও স্থানীয় সাংবাদিক হাবিবুর রহমানের ওপর হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এ ছাড়া গত মঙ্গলবার, বুধবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সনমান্দি ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকার মোস্তফা, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের পঞ্চবটি গ্রামের রাজু, আবু রায়হান ও ইমরান, সোনারগাঁও পৌরসভার খাসনগর দিঘিরপাড় গ্রামের আকাশ নামে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের সোনারগাঁও থানা পুলিশের দায়ের করা দুইটি মামলা ও স্থানীয় সাংবাদিক হাবিবুর রহমানের ওপর হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। এ ছাড়া গত মঙ্গলবার, বুধবার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় সনমান্দি ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকার মোস্তফা, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের পঞ্চবটি গ্রামের রাজু, আবু রায়হান ও ইমরান, সোনারগাঁও পৌরসভার খাসনগর দিঘিরপাড় গ্রামের আকাশ নামে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানা পুলিশের দুইজন উপপরিদর্শক (এসআই) ৮৩ জনের নাম উল্লেখ করে আরও ৫-৬শ অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় দুইটি মামলা দায়ের করেন। এ ছাড়া আহত ওই সাংবাদিক ১৭ জন জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও শতাধিক আসামি করে মামলা দায়ের করেন।এছাড়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানাতেও হেফাজতের বিরুদ্ধে ৬ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin