না.গঞ্জ আওয়ামী লীগে তাদের অবদান অনস্বীকার্য : ইব্রাহিম চেঙ্গিস

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম চেঙ্গিস একটি স্থানীয় গ্ণমাধ্যমকে বলেছেন, স্বাধীনতার পর থেকেই একেএম সামসুজ্জোহা, নাগিনা জোহা পরিবারের অনেক অবদান রয়েছে। তারা ভাষা সৈনিক ছিলেন। সেই সাথে কর্মীবান্ধব নেতা ছিলেন নাসিম ওসমান। এই অর্জন তাদের প্রাপ্য। নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগে তাদের অবদান অনস্বীকার্য।

২৮ মে চেঙ্গিস নিউজ নারায়ণগঞ্জকে এসব কথা বলেন

জানা গেছে, এবার নারায়ণগঞ্জে নির্মিত এবং নির্মাণাধীন তিনটি স্থাপনার নাম ওসমান পরিবারের সদস্যদের নামে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এই মর্মে তিনটি পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। স্থাপনাগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি সেতু, ও দুটি আঞ্চলিক মহাসড়ক। আর এসকল বিষয়কে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে বইছে উচ্ছ্বাস। তারা নিজেদেরকে গর্ববোধ করছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও তার পরিবারের সাথে রাজনীতি করতে পেরে।

জানা যায়, স্থাপনাগুলোর মধ্যে মদনপুর-মদনগঞ্জ-সৈয়দপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে বন্দর উপজেলায় নির্মাণাধীন তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুটির নামকরণ হয়েছে বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম নাসিম ওসমানের নামে। তিনি জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য এবং সেই সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি একেএম শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের জাতীয় পার্টির এমপি একেএম সেলিম ওসমানের ভাই।

তাদের বাবা স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত (মরণোত্তর) ভাষা সৈনিক এ কে এম সামসুজ্জোহার নামে নামকরণ হয়েছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সাইনবোর্ড-নারায়ণগঞ্জ মহাসড়কের সাইনবোর্ড থেকে চাষাড়া পর্যন্ত আঞ্চলিক মহাসড়কটি। আর এ কে এম সামসুজ্জোহা স্ত্রী ভাষা সৈনিক বেগম নাগিনা জোহার নামে নামকরণ হয়েছে খানপুর হয়ে হাজীগঞ্জ গোদনাইল হয়ে ইপিজেড পর্যন্ত আঞ্চলিক মহাসড়কটি।

সূত্র: নিউজ নারায়াণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin