না.গঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ, মুয়াজ্জিন গ্রেপ্তার

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

১৪ বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মসজিদের মুয়াজ্জিন গ্রেপ্তার হয়েছে।

শুক্রবার (১ জানুয়ারি) দিবাগত রাত ২টার দিকে চিটাগাংরোড এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ।

এর আগে ওই রাতেই দিবাগত রাতে ভুক্তভোগী বাবা অভিযুক্ত মুয়াজ্জিন মো. রফিকুল ইসলাম রবিনের (২৫) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

সে সোনারগাঁও থানাধীন মহজমপুর এলাকার মো. সোহরাব মিয়ার ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর ডেমরায় পরিবারের সঙ্গে বসবাস করে স্থানীয় একটি মাদ্রাসায় লেখাপড়া করে ভুক্তভুগী ঐ ছাত্রী। অভিযুক্ত মোঃ রফিকুল ইসলাম রবিন ভুক্তভোগীর বাড়ির পাশের একটি মসজিদে মোয়াজ্জেম হিসেবে কর্মরত থাকার সুবাদে পরিচয় হয় তাদের। পরিচিতির সুবাদে প্রেমের প্রস্তাবসহ বিভিন্নধরনের কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল অভিযুক্ত। এসবে রাজি না হওয়ায় গত ৩০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ডেমরার শুকুরশী বাজার সংলগ্ন ভূঁইয়া বাড়ি মোড়ের সামনে থেকে মাদ্রাসার দিকের যাওয়ার কথা বলে রিক্সায় উঠে সিদ্ধিরগঞ্জের নাভানা সিটি এলাকায় এম.এম টাওয়ারের পশ্চিম পাশে পরিত্যক্ত ফাঁকা জায়গায় নিয়ে ধর্ষণ করে রবিন। ঘটনার দু’দিন পর ১ জানুয়ারি ভুক্তভোগী ঐ ছাত্রী তার মাদ্রাসা শিক্ষিকাকে ঘটনাটি জানালে মাদ্রাসা শিক্ষিকা ভুক্তভোগীর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শরীফ আহমেদ জানান, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে এবং ভুক্তভোগীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin