না.গঞ্জে বিপুল পরিমান ককটেল ও অস্ত্রসহ আন্ত:জেলা ডাকাত দলের ৭ সদস্য আটক

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে বিপুল পরিমান তাজা ককটেল ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সাত সদস্যকে আটক করেছে র‍্যাব-১১’র একটি আভিযানিক দল। বৃহস্পতিবার ভোরে সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধিন শিমরাইল এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ডাকাতির প্রস্ততির সময় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

এসময় তাদের কাছ থেকে জব্দ করা হয় ৪৪ টি তাজা ককটেল ও তিন রাউন্ড গুলি ভর্তি একটি বিদেশি পিস্তলসহ বেশ কিছু দেশিয় অস্ত্র। দুপুরে র‍্যাব-১১ ব্যাটালিয়ানের অধিনায়ক (সিও) লেফটেনেন্ট কর্ণেল খন্দকার সাইফুল আলম সংবাদ সম্মেলনে জানান, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে আটককৃতরা সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সদস্য। বিশেষ করে স্বর্ণের দোকান তাদের প্রধান টার্গেট। পূব প্রস্তুতি নিয়ে কোন স্বর্ণের দোকানে অতর্কিত হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এবং অস্ত্র প্রদর্শন করে মানুষের মধ্যে আতংক সৃষ্টি করে। পরে স্বর্ণের দোকান থেকে যাবতীয় স্বর্ণালংকার লুট করে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ে। এই চক্রটি দীর্ঘদিন যাবত দেশের বিভিন্ন জেলায় স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ছিল বলে আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে।

র‍্যাব-১১ অধিনায়ক আরো জানান, গোয়েন্দা সূত্রে এই চক্রটি সম্পর্কে তথ্য পেয়ে র‍্যাব গত দুই মাস যাবত তাদের উপর নজরদারি করে আসছিল। বৃহস্পতিবার ভোরে এই ডাকাত দলটি অস্ত্রসহ প্রস্তুতি নিয়ে লক্ষীপুর জেলা সদরের কলেজ রোড এলাকার একটি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির উদ্দেশ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সংঘবদ্ধ হয়ে অবস্থান করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব সেখানে অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের সাত সদস্যকে বিপুল পরিমান অস্ত্রসহ আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা প্রক্রিয়াধিন রয়েছে বলে র‍্যাব জানিয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin