না.গঞ্জে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবিতে ছাত্রফ্রন্টের মানববন্ধন

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা, শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ-সাম্প্রদায়িকীকরণ বন্ধ, ছাত্রদেরএক বছরের বেতন-ফি মওকুফ করা ও স্কুল কলেজের শিক্ষকদের জন্য রাষ্ট্রীয় উদ্দ্যেগে বিশেষ বরাদ্দের দাবিতে মানববন্ধণ করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট।

রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় বন্দর প্রেস ক্লাবের সামনে এই মনববন্ধন ও পরর্বতীতে মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বন্ধর উপজেলার আহ্বায়ক মুন্নি সরদারের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি সুলতানা আক্তার, বন্ধর উপজেলা কমিটির সদস্য সচিব রাকিবুল হাসান রবিন, বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম পাঠাগারের আহ্বায়ক ফাতেমা আক্তার মুক্তা, সদস্য নুসরাত জাহান নিঝুম, সানজিদা আক্তার সহ নেতৃবৃন্দ।


এসময় নেতৃবৃন্দ বলেন, পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর শিক্ষার সংকোচন নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে জীবন দিয়েছিল মোস্তফা, বাবুল, ওয়াজিউল্লাহসহ নাম না জানা আরও অনেকে। সেই থেকে বাংলাদেশের ছাত্র সমাজ এই দিনটাকে শিক্ষা দিবস হিসেবে শ্রদ্ধার সাথে পালন করে আসছে।

দাবি করেন, ৫৮ বছর পরেও এসে  স্বাধীনদেশের শাসকগোষ্ঠীর শিক্ষাসংক্রান্ত দৃষ্টিভঙ্গি বদলায়নি। দেশের উচ্চ শিক্ষার প্রধান স্তর – মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং এমনকি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ার খরচ বেড়েই চলেছে। যেখানে সাধারণ মানুষের সন্তানদের শিক্ষা গ্রহণ অসম্ভব হয়ে পড়েছে।  আরেকদিকে করোনা মহামারীর কারণে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন ধ্বংসের মুখে। এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের কোন ধরনের উদ্যোগ নেই। অন্যদিকে করোনার এই সময়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে আমাদের দেশের শিক্ষকরা।  তাই সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট মনে করে করোনার এই পরিস্থিতে  রাষ্ট্রীয় উদ্দ্যগে শিক্ষকদের জন্য বিশেষ বরাদ্ধ দেওয়া প্রয়োজন।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin