না.গঞ্জে আত্মহত্যায় ব্যর্থ হয়ে কিডনী বিক্রির ঘোষনা সাংবাদিকের

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

আর্থিক সংকট ও ব্যবসায় ব্যর্থ হয়ে নিজের কিডনি বিক্রির ঘোষনা দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় অনলাইনের সম্পাদক মাে. মহসিন আলম। এর আগে হতাশা থেকে একাধিকবার আত্মহত্যা চেষ্টা করেছেন বলে জানান তিনি।

অর্থনৈতিক দৈন্যদশা এবং হতাশার ফলে নিজের কিডনি বিক্রির ঘােষণা দিয়ে সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন এ সম্পাদক। এ নিয়ে বেশ কয়েকজন কিডনি
গ্রহীতার সাথে আলােচনা চলছে বলেও জানান।

মহসিন আলমের ফেসবুক পর্যালোচনা করব দেখা যায়, ২০০০ সালে ভিসিআর এর দোকান দেন মহসিন। পুজি কম থাকায় এবং গ্রাহকদের অভিযোগ সহ নানা সমস্যায় সেই ব্যবসা ছেড়ে দিতে বাধ্য হন। দীর্ঘদিন বেকার থাকার পর ২০০৩ সালে সাংবাদিকতা পেশায় যোগ দেন তিনি। স্থানীয় দৈনিক ইহকাল পত্রিকা দিয়ে পেশা শুরু করেন তিনি। এর পর যুগের চিন্তা, ড্যান্ডিবার্তা সহ বিভিন্ন স্থানীয় দৈনিকের পাশাপাশি জারীয় দৈনিকেও কাজ করেন। সাংবাদিকতা পেশার পাশাপাশি তিনি ঔষধের দোকান দেন তিনি। ২০০৭ সালে দোকান দিলেও লাভের মুখ দেখেন নি তিনি। বার বার ঔষধের ব্যবসায় ব্যর্থ হয়ে একাধিকবার আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন তিনি।

ফেসবুকে তিনি আরও লিখেন,দীর্ঘদিন পর তিনি আবারও ঘুরে দাড়ানোর স্বপ্ন দেখছেন। মাত্র দুই লাখ টাকা হলেই তিনি আবার পুনরায় মাল তুলে ব্যবসা করতে চান। বিভিন্ন জনের কাছে টাকা চেয়েও আশানুরূপ সাড়া পান নি। তাই বাধ্য হয়ে নিজের অঙ্গ বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin