না.গঞ্জের ইমেজটাকে ছোট করা যাবে না: শামীম ওসমান

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ শামীম ওসমান বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের সাংবাদিক ভাই যারা আছেন, ঈদের আগে গুরুত্বপুর্ন কিছু কাজ থাকায় আপনাদের সাথে বসে কথা বলতে পারি নাই। কিছু দিনের মধ্যেই আলাদা আলাদা ভাবে সাংবাদিক গ্রুপের সথে বসে আলাপ করবো। আপনারাও আমাদের সাহায্য করবেন, যে কিভাবে নারায়ণগঞ্জটাকে সুন্দর করা যায়। নারায়ণগঞ্জের সম্মান ক্ষুন্ন হয় এমন নিউজ না, নারায়ণগঞ্জের সম্মান বৃদ্ধি পায় এমন নিউজ করুন।

সদর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যেগে রবিবার (২৩ মার্চ) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা কমপ্লেক্সে আয়োজিত সাইকেল ও পোষাক বিতরণি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান এ কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, আল্লাহ হায়াত দান করলে, যতদিন রয়েছি নারায়ণগঞ্জের উন্নয়ন করে যাবো, কিছু উন্নয়ন যদি বাকি থেকে যায় সেটা নেক্সট জেনারেশন করে ফেলবে ইনশাল্লাহ। ভালো মানুষগুলো যদি ভালো যায়গায় আসে তাহলে সব ভালো কাজ হয়। আর খারাপ মানুষ যদি ভালো যায়গায় আসে তাহলে সে যায়গাকে খারাপ বানিয়ে ফেলে। কেও আসে খাইতে, কেও আসে দিতে। যে খাওয়ার সে খাবে যে দেয়ার সে দিবে। সদর উপজেলার একটি বিষয়ে দেখছি অনেক নিউজ করা হচ্ছে। এই নিউজ করা টা ঠিক আছে কিন্তু, এর আগে দেখতে হবে যে এই নিউজ করে নারায়ণগঞ্জের সম্মানটা বাড়লো নাকি কমলো। ওই লোকটা গরীব ‘হ্যা’, কিন্তু এভাবে উপজেলা অফিসারকে ছোট করা মানে ওই চেয়ারটাকে (উপজেলা কর্মকর্তার পোস্ট) ছোট করা যা মোটেও ভালো না বলে আমি মনে করি। আমি জানিনা আসলে ঘটনাটা কি, যাই হোক আমি ওইখানের চেয়ারম্যান মেম্বারদের দ্বারা জানার চেষ্টা করবো। এখানে যারা সাংবাদিক রয়েছেন তারা আমার এই বার্তাটা সকলের কাছে পৌছে দিবেন। যে নারায়ণগঞ্জের ইমেজটাকে ছোট করা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, এটাই তো দান করার সময়, যে দেয় সেইতো মহৎ। কোরআনের আয়াতেও এটা লেখা আছে। কারন পৃথিবীতে একটা সত্য আছে যে আমরা কেই বেঁচে থাকবো না। হিন্দু, মুসলিম, বোদ্ধ, খৃষ্টান যে যেই জাতির বা ধর্মেরই হোক না কেন সকলকে মরতে হবেই। ভুল এবং ত্রুটি প্রতিটা রাজ্যেই থাকে, কিন্তু ভুল করার পরে যে সংশোধন করে সেই হচ্ছে প্রকৃত মানুষ। দোয়া করবেন যাতে আপনাদের জন্য সব সময় কাজ করে যেতে পারি।

কোন সমস্যা হলে চেয়ারম্যান রয়েছে, আমি রয়েছি, নতুন ইউএনও রয়েছে  ইনি খুব ভালো একজন মানুষ, ভালো বংশের একজন মেয়ে। নারায়ণগঞ্জের দু-একটা পত্রিকা এমন আছে যারা নারায়ণগঞ্জের সম্মানকে ক্ষুন্ন করে। কেও কোন অপরাধ করলে তার উর্ধতন কর্মকর্তাদের জানান। নারায়ণগঞ্জের কোথাও মাদক বিক্রি হলে আমাকে জানান। আমি চেষ্টা করবো সেটা বন্ধ করার। এই লিং রোডের কোথাও কেউ অবৈধ ভাবে পয়সা খাইতাছে কিনা দেখেন, খাইলে ক্যামেরা দিয়া ছবি তুলেন। ছবি নিয়া এসপি সাহেবের কাছে যান দেখান। নয়তো আমার কাছে দেন। এটা আমাদের জেলা আমাদেরকেই সুন্দর রাখতে হবে।

এ সময় সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফা জাহুরার সভাপতিত্বে, ফতুল্লা ইউনিয়ণ পরিষদের চেয়ারম্যান এম শওকত আলীসহ জেলা প্রশাসনের ও জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin