নারায়ণগঞ্জে হেফাজতের নতুন কমিটি

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

নারায়ণগঞ্জে নতুন করে হেফাজতে ইসলামের পাল্টা কমিটি গঠন হতে যাচ্ছে। এ কমিটি হবে প্রয়াত আমীর মাওলানা আহমদ শফী অনুগামীদের নিয়ে। এ কমিটিতে রাখা হচ্ছে না হেফাজতের আরেক কমিটি জুনায়েদ বাবুনগরী সমর্থিতদের। নতুন কমিটিতে নারায়ণগঞ্জ আহবায়ক হিসেবে জামিয়া কারিমিয়া মাদ্রাসার মুহতামিম আবু সায়েম খালেদ ও সদস্য সচিব হিসেবে মাওলান রহমতউল্লাহ বুখারীর নাম রয়েছে। কেন্দ্রীয়ভাবে কমিটি ঘোষণার পরেই নারায়ণগঞ্জের এ কমিটি গঠন করা হতে যাচ্ছে।

জানা গেছে, আহমদ শফি বেঁচে থাকতে নারায়ণগঞ্জ শহরের পূর্ব ইসদাইর এলাকাতে জামি কারিমিয়া মাদ্রাসাতে আসতেন। এ মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আবু সায়েম খালেস ছিলে আহমদ শফির অন্যতম ভক্ত ও অনুগামী। কিন্তু গত বছর নারায়ণগঞ্জে হেফাজতের যে কমি গঠন করা হয় সেখানে তাঁকে রাখা হয়নি। এছাড়া শফি হুজুর থাকতে জেলা হেফাজে কমিটিতে রহমতউল্লাহ বুখারীর নাম থাকলেও বাবুনগরীর কমিটিতে তাকে রাখা হয়নি।

হেফাজতের একটি সূত্র জানান, জেলা ও মহানগরের হেফাজতের সবশেষ কমিটির নে মাওলানা আবদুল আউয়াল, মুফতি বশিরউল্লাহ, ফেরদাউসুর রহমান ও হারুন অর রশিদে মূলত বাবুনগরী অনুগামী। হেফাজতের শফি হুজুর পন্থীদের সঙ্গে তাদের সুসম্পর্ক থাকলে তা মূলত বাবু নগরী ও প্রয়াত নূর হোসাইন কাশেমী অনুগামী ছিলেন।

এরই মধ্যে ২৫ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্তের ঘোষণা দেন সংগঠনের আি মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী। তিনি জানান, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে কমিটি ভে দেওয়া হয়েছে। যদিও হেফাজতের শীর্ষ পর্যায়ের সূত্রগুলো বলছে, গত ১১ এপ্রিল থেকে সারাদেশে হেফাজত নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, আলেমদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্য সংগ্রহ এ কওমি মাদ্রাসা বন্ধ করার পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের সঙ্গে সমঝোতার অংশ হিসেবেই বর্তমান কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে সদ্য বিলুপ্ত কমিটির নেতৃত্বে থাকা ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দলের নেতাদেরও বাদ দেওয়া হতে পারে সম্ভাব্য নতুন কমিটি থেকে। হেফাজতে ইসলামের আল্লামা আহমদ শফীপন্থী আলেমরা জানিয়েছেন, হেফাজতের বর্ত কমিটি ভেঙে দেওয়ায় নতুন করে হেফাজতকে ঐক্যবদ্ধ করার সুযোগ এসেছে।

বিশেষ করে ১৮ সেপ্টেম্বর আল্লামা আহমদ শফীর ইন্তেকাল ও তার আগে-পরে হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসায় যেসব অনাকাংখিত ঘটনা ঘটেছে, সেগুলোর পুনরাবৃত্তি বন্ধ করা হবে। একইসঙ্গে যেসব শিক্ষককে মাদ্রাসা থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল, তাদের সসম্মানে ফিরিয়ে নেওয়ার কাজটিও শুরু হবে।

সূত্রঃ লাইভ নারায়ণগঞ্জ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin