নাপা খেয়ে শিশু মৃত্যুর প্রচারণা: নেপথ্যের নায়ক গ্রেফতার

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর দুই শিশু হত্যাকাণ্ডের মূল হোতা এবং শিশুদের মায়ের পরকীয়া প্রেমিক সফিউল্লা ওরফে সোফাই মিয়াকে রাজধানীর আব্দুল্লাপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৮ মার্চ) বিকেল পাঁচটার দিকে পুলিশের আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর থেকে তাকে গ্রেফতার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা মো. শাহিন।

তিনি বলেন, ঘটনার পর থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ পুলিশের একাধিক টিম সফিউল্লাকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালিয়ে আসছিলেন। সোমবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আশুগঞ্জ পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

এর আগে ওই শিশুর পিতা ইট ভাটার শ্রমিক ইসমাইল হোসেন সুজন বাদী হয়ে তার স্ত্রী রিমা আক্তার ও সফিউল্লা ওরফে সোফাই মিয়াকে আসামি করে আশুগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গত ১০ মার্চ রাতে আশুগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেন সুজন খানের ছেলে ইয়াছিন খান (৭) ও মোরসালিন খানকে (৫) হত্যা করে তার মা রিমা আক্তার । পরকীয়া প্রেমিক সফিউল্লার পাঠানো বিষমাখা মিষ্টি খাইয়ে তাদেরকে হত্যা করা হয়। প্রথমে নাপা সিরাপ খেয়ে শিশু দুটির মৃত্যু হয় বলে প্রচারণা চালানো হয়। দুই সন্তানকে দুনিয়া থেকে সরিয়ে দিলে রিমাকে বিয়ে করবে বলে সফিউল্লা প্রলোভন দেখায়। রিমাকে গ্রেফতারের পর পুলিশ রহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হয়।

গ্রেফতারের পর রিমা আক্তার ১৬৪ ধারায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।

বর্তমানে রিমা আক্তার জেল হাজতে রয়েছেন। হত্যাকাণ্ডের পর স্বেচ্ছায় দায় স্বীকার করার কারণে তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়নি।

সূত্রঃ সময় নিউজ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin