নগরীর দেওভোগে শবে বরাতের রাতে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা!

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

পবিত্র শবে বরাতের রাতে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলো ফতুল্লা থানার দেওভোগ মাদ্রাসার খোকা মিয়ার ভাড়াটিয়া পারভেজ মিয়ার পুত্র তুহিন (২০), একই এলাকার আনিসুল রহমান হিরার ভাড়াটিয়া মৃত কফিল উদ্দিনের পুত্র রুবেল (২১) ও পারভেজ মিয়ার ভাড়াটিয়া ইউসুফ মিয়ার পুত্র ফারুক মিয়া(৩২)।

গতকাল শুক্রবার (১৮ মার্চ) আনুমানিক রাত বারোটায় ফতুল্লা মডেল থানার আওতাধীন দেওভোগ মাদ্রাসা এলাকায় ঘটনা ঘটছে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী তরুনী বাদী হয়ে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগ এনে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় বলা হয়েছে,শবে বরাতের রাত বারোটার দিকে তরুনী ওজু করার জন্য বাসার বাইরের খোলা বাথরুমে ওজু করার জন্য যায়। ওজু করা কালীন সময়ে গ্রেফতারকৃতরা পেছন দিক থেকে গিয়ে তার পরিধেয় ওড়না দিয়ে মুখে পুরে দিয়ে পাজঁ কোলে করে পাশের একটি রুমের ভিতর নিয়ে গিয়ে তার জামা খুলে স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ সহ বাদীকে ধর্ষনের চেষ্টা করে।

এ সময় বাদী ডাক-চিৎকারের চেস্টা করলে তার মুখে গোজাঁ ওড়নাটি সরে গেলে সে চিৎকার করলে গ্রেফতারকৃতরা বাদীকে ছেড়ে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক রাসেদুল ইসলাম জানান, ধর্ষনের চেস্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত তিন আসামীকে রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin