ধলেশ্বরীতে ট্রলার ডুবির ৫ দিন পর মিললো ৪ মৃতদেহ

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

জেলার ফতুল্লার ধর্মগঞ্জের ধলেশ্বরী নদীতে লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলারডুবির ঘটনার পাঁচদিন পর মা-মেয়েসহ নিখোঁজ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ-পুলিশ। এখনো এ ঘটনায় ৬ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

আজ রোববার (৯ জানুয়ারি) সকালে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ এলাকায় ধলেশ্বরী নদী থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মরদেহের মধ্যে একই পরিবারের নিখোঁজ চারজনের ভেতর মা-মেয়ে রয়েছে। এরা হলেন- জেসমিন ও তার মেয়ে তাসমিন। বাকি দুজনের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জ অফিসের উপসহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, ট্রলারডুবির স্থান থেকে কিছুটা দূরে চারটি মরদেহ ভাসতে দেখে আমাদের খবর দেন স্থানীয় লোকজন। পরে আমরা গিয়ে উদ্ধার করি। মরদেহগুলো শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

তিনি আরও বলেন, নিখোঁজদের খোঁজে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। আমাদের পাশাপাশি কোস্টগার্ড, নৌপুলিশও চেষ্টা চালাচ্ছে। ট্রলার ও নিখোঁজদের সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উল্লেখ্য গত ৫ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ এলাকায় ধলেশ্বরী নদীতে ঢাকাগামী এমভি ফারহান-৬ নামের লঞ্চের ধাক্কায় ৪০-৫০ যাত্রীসহ খেয়া পারাপারের একটি ট্রলারডুবে যায়। এতে নিখোঁজ হয় অতন্ত ১০ জন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin