ধর্মীয় স্থাপনা- বাড়িঘর বানালে অবহিত করতে হবে ইউনিয়ন পরিষদকে

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

ইউনিয়ন পর্যায়ে মাস্টার প্ল্যান তৈরি না হওয়া পর্যন্ত ধর্মীয় স্থাপনা বা বাড়িঘর তৈরি করতে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করতে নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে সব জেলা প্রশাসককে চিঠি দিয়ে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির পরামর্শে সম্প্রতি এই নির্দেশনা দেওয়া হয়। তবে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান বা বাড়ি করতে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে অনুমতির প্রয়োজন পড়বে না।

চিঠিতে বলা হয়, স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ৪৭ মোতাবেক দ্বিতীয় তফসিলে ইউনিয়ন পরিষদের ৩৯টি দায়িত্ব অর্পণ করা হয়েছে। এরমধ্যে এসব দায়িত্বের মধ্যে ২২ নম্বরে ইউনিয়নে নতুন বাড়ি, দালান নির্মাণ ও পুনঃনির্মাণ এবং বিপজ্জনক দালান নিয়ন্ত্রণের দায়িত্ব ইউনিয়ন পরিষদের ওপর অর্পিত।

এছাড়া সংসদীয় স্থায়ী কমিটির পরামর্শ অনুযায়ী যতদিন পর্যন্ত ইউনিয়ন পর্যায়ে মাস্টার প্ল্যান তৈরি হবে না ততদিন পর্যন্ত ধর্মীয় স্থাপনা বা বাড়িঘর তৈরি করতে ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে।
‘এমতাবস্থায়, যতদিন পর্যন্ত ইউনিয়ন পর্যায়ে মাস্টার প্ল্যান তৈরি হবে না ততদিন পর্যন্ত ধর্মীয় স্থাপনা বা বাড়িঘর তৈরির পূর্বে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করতে হবে।
এই মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো। ’

গ্রাম-গঞ্জে বাসা-বাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ-মাদ্রাসা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, ক্লাব কিংবা অফিস-আদালতসহ যে কোনো অবকাঠামো নির্মাণ করতে একটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে বলে জানিয়ে আসছিল স্থানীয় সরকার বিভাগ।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ দর্শনের ফলে শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে পৌঁছে দিচ্ছে সরকার। তাই গ্রামকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে হবে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin