দেশে কোনও মানুষ দুঃখে নেই, সবাই সুখে আছে: তথ্যমন্ত্রী

শেয়ার করুণ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজকে দেশের প্রতিটি মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে। প্রত্যেক মানুষের আয় বেড়েছে। দেশের কোনও মানুষ এখন দুঃখে নেই, সবাই সুখে আছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) দুপুরে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, এখন শ্রমিকের মজুরি বেড়েছে। দেশের কোথাও ৫০০ টাকার কমে এখন দিনমজুর পাওয়া যায় না। চট্টগ্রামে ৮০০ টাকার কমে দিনমজুর পাওয়া যায় না। শেখ হাসিনা আজকে দেশকে সেই জায়গায় নিয়ে গেছেন। সমগ্র পৃথিবী আজ বাংলাদেশের প্রশংসায় পঞ্চমুখ, সবাই শেখ হাসিনার প্রশংসা করছেন।

তিনি বলেন, এখন গ্রামের অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছে গেছে যে দেখে চেনার উপায় নেই। গ্রাম শহরে পরিণত হচ্ছে। গ্রামেও কাঁচা রাস্তা নেই। কুঁড়েঘর আর দেখা যায় না। দেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন হয়েছে। এখন রাজশাহী আর ঢাকার মধ্যে কোনও পার্থক্য নেই। এত উন্নয়নের কারণে দেশের মানুষ খুব সুখে আছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির নেতারা বলেন, দেশের মানুষ সুখে নেই আর জাতিসংঘ বলে সুখের সূচকে বাংলাদেশ সাত ধাপ এগিয়েছে। আসলে বিএনপির কাজ মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা। তাদের কথায় কেউ সাড়া দেয় না। কারণ, দেশটা বদলে গেছে। তারা বলেছিল, আওয়ামী লীগ পদ্মা সেতু করতে পারবে না। রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হলে সুন্দরবন ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু আমরা নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছি। রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রও হয়েছে, সুন্দরবনেরও কোনও ক্ষতি হয়নি।

তিনি বলেন, অনেক সূচকে আমরা আজকে ভারতকে পেছনে ফেলেছি। এখন পাকিস্তানের মিডিয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করা হয়। সব সূচকে আজকে আমরা পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে গেছি। আর এসব সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণেই।

মন্ত্রী বলেন, ইদানীং কিছু পণ্যের দাম বেড়েছে, এটি সারা পৃথিবীতেই বেড়েছে। আমাদের দেশেও কিছুটা বেড়েছে কিন্তু তুলনামূলক কম। তবু আমাদের প্রধানমন্ত্রী এক কোটি পরিবারকে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে স্বল্পমূল্যে পণ্য দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন। এটি অব্যাহত থাকবে।

সূত্রঃ বাংলা ট্রিবিউন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin